বিতর্ক একজন মানুষকে যুক্তিবান,প্রজ্ঞাবান ও সহনশীল করে তোলে–ছাত্রসেনার বির্তক অনুষ্ঠানে বক্তারা

45691840_357822591454954_2187087631630729216_n.jpg

মুহাম্মদ সরোয়ার আজমঃ

সাংগঠনিক কর্মতৎপরতা বৃদ্ধি, সু-বক্তা, দক্ষ কর্মী ও জ্ঞানের পরিধি বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার আয়োজনে আজ শুক্রবার (০৯ নভেম্বর) বিকাল ৩ টা হতে লালিয়ারহাট হোসাইনীয়া সিনিয়র মাদ্রাসা মিলনায়তনে সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম উত্তর জেলার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকী। চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রসেনার শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন কাদেরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিতর্ক প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বে বিচারক ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনার আইন বিষয়ক সচিব এডভোকেট এডিএম আরুছুর রহমান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রসেনার সাবেক সভাপতি মাওলানা নাজিমুল হক কাদেরী, কেন্দ্রীয় ছাত্রসেনার সহ-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ফয়সাল করিম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় ছাত্রসেনার ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক হোসাইন মুহাম্মদ এরশাদ।
প্রধান অতিথি বলেন, যুক্তির তর্কই হলো বিতর্ক। বিতর্ক একজন মানুষকে যুক্তিবান, প্রজ্ঞাবান ও সহনশীল করে তোলে। পুঁথিগত বিদ্যা ছাড়াও সহ-মননশীল কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে নিজেদের মানসিক বিকাশ ঘটাতে হবে। শুধুমাত্র পুঁথিগত বিদ্যা দিয়ে মানসিক বিকাশ সম্ভব না। এর জন্য অন্যান্য বিষয়াবলী সম্পর্কে জানতে হবে, জ্ঞান লাভ করতে হবে। আর যুক্তির মাধ্যমে পরিশুদ্ধ হয়ে নিজেদের জীবন ও সমাজকে বিকশিত করতে হবে। আর এতেই দেশ ও জাতি উপকৃত হবে।
প্রথমবারের মত আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় জেলা আওতাধীন মোট আটটি উপজেলা ও প্রাতিষ্ঠানিক শাখা অংশগ্রহণ করেন। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন মুহাম্মদ মনির আহমদ, মুহাম্মদ আব্দুল মোতালেব রাজু, মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল ফারুক, মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন নাহিদ, মুহাম্মদ শফিউল আকবর, মুহাম্মদ রবিউল মোস্তফা, মুহাম্মদ ইসহাক, মুহাম্মদ নুরুল আজিম, মুহাম্মদ জাহেদুল ইসলাম, মুহাম্মদ কায়েস, মুহাম্মদ ফোরকান, মুহাম্মদ আরফাত প্রমুখ।

Top