সামাজিক অবক্ষয় প্রসঙ্গে নির্বোধদের প্রতি হুশিয়ারি চিঠি- আজিনুর আক্তার

45687977_2245702052332021_193148063735349248_n.jpg

————————-
একদা এক সুপুত্র ও সুন্দরী স্ত্রীর অধিকারী এক দায়িত্বহীন নির্বোধ সন্তান তাঁর নিজ মাকে বলেছিল বাড়ি ছেড়ে যেতে।

হে নির্বোধ সন্তান, তোমার পিতা-মাতা পৃথিবীতে বর্তমান থাকা অবস্থায় তুমিতো একটি সন্তানমাত্র। এই সংসারে তোমার অবস্থান কোথায় ? নিঃসন্দেহে তোমার মায়েরও পরে। কে তুমি, তোমার স্পর্ধা হয় কি করে ? তোমার জেনে রাখা উচিৎ, এই সংসারে তোমার বাবার পরে একমাত্র তোমার মা’ই একচ্ছত্র অধিকারিনী। প্রতিটি সংসারের প্রত্যকটি বাবা এবং মা উভয়ই এক একজন মহীয়সী পুরুষ ও মহিলা। তোমার লজ্জা করা উচিৎ সন্তান হয়ে একজন সম্মানিত মায়ের প্রতি অভদ্র আচরনের জন্য। তোমার মা কেন, তিনিতো অনেক উর্ধ্বে, তোমার সংসারের কাউকেই তুমি বেরিয়ে যেতে বলার অধিকার রাখ না, যেমন আর কেউও তোমাকে বের করে দেওয়ার স্পর্ধা দেখায় না। জন্ম কিংবা আইনগতভাবে প্রত্যেকেই এই পরিবারের এক একজন গুরুত্বপূর্ন সদস্য। তোমার বোন, সেও তোমার মত তোমার বাবার সন্তান। এই সংসারে তুমি নিজ অধিকার প্রতিষ্ঠা করে আজীবন সগৌরবে বেঁচে থাকার অধিকার রাখ মাত্র। অন্য কারো অস্তিত্ব নির্ধারন করার অধিকার নয়। আমি বলব, এই সংসারে তোমার সন্তানের গুরুত্বও তোমার সমপরিমান, যদি কিনা শুধুমাত্র তোমার পিতৃ সম্পত্তির বাহাদুরি দেখিয়ে থাক। কারন, সে সন্তান এ সংসারে হেলায় আসেনি, তাঁর একটি প্রক্রিয়া ছিল। এমনকি তোমার স্ত্রী, তাঁর অস্তিত্বের বিরুদ্ধেও তোমার কথা তুলার সুযোগ নেই। আপন ক্ষমতার বাহাদুরি দেখাবার শখ হলে তুমি যেটা করতে পারো সেটা হল- সসম্মানে কাবিন শর্ত পরিশোধ করে স্ত্রী সেবার দায় থেকে মুক্তি নিতে পারো মাত্র। অতপরঃ সে স্ত্রী চাইলে আজীবন এ সংসারে সসম্মানে মাতৃসনদে অবস্থান করতে পারে। কারন, উত্তারাধিকার আইনে এ বাড়ির মালক তারই গর্ভদানকৃত সন্তান।

যৌবন যাঁর দায়িত্ব তাঁর, এই স্লোগানকে সামনে রেখে তোমার উচিৎ সামর্থ্য অনুযায়ী পরিবারে উপস্থিত প্রত্যেক সদস্যের প্রয়োজনের প্রতি খেয়াল রাখা।যেমনটি তোমার বাবা তাঁর যৌবন কাটিয়েছিলেন তোমাদের প্রয়োজন মেটানোর তাগিদে। এই বৃদ্ধ বয়সে তাদের অপ্রয়োজনীয় শরীরের প্রতি যদি তোমার বিতৃষ্ণা জন্মে তবে সে লজ্জা প্রকাশের আগে ঋন পরিশোধে প্রস্তুত হও। তোমার মত অধম তো আর সবটা পারবে না, শুধু যে পরিমান অর্থ তোমার অসহায় অবস্থায় তাঁরা প্রদান করেছে, সে পরিমান অর্থ প্রতি মাসে তাঁদেরকে ফিরিয়ে দাও।আর এই টুকু সামর্থ্য যদি তোমার না ই থাকে, তবে বিনয়ী স্বরে সশ্রদ্ধায় সে মহীয়সী পিতা-মাতার সেবাদাস ভাবো নিজেকে।

আজিনুর আক্তার
ইতিহাস বিভাগ ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় :

Top