টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা(SDG)অর্জনে এনজিওদের ভূমিকা জরুরী..কে এম আব্দুস সালাম।

received_2110303845688469.jpeg

সাইদুজ্জামান সাঈদ ঃ

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা(SDG)বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিক–রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য জ্বালানী সংকট এর সমাধানের লক্ষ্যে অগ্রযাত্রাসহ অন্যান্য এনজিও সমূহের আরো জোরালো ভূমিকা রাখা উপর গুরুত্বারোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এনজিও বিষয়ক মহাপরিচালক কে এম আব্দুস সালান।
এনজিও বিষয়ক ব্যুরো প্রধানমন্ত্রীর কার্য্যালয়ের মহাপরিচালক কে এম আব্দুস সালাম গত (১৭/১০/২০১৮) চট্টগ্রামস্থ বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা অগ্রযাত্রা’র প্রধান কার্য্যালয় পরিদর্শন কালে এসব কথা বলেন ।

অগ্রযাত্রার বিভিন্ন সাধারণ সদস্য,নিবার্হী সদস্য ও উপকার ভোগীদের সাথে মতবিনিময় কালে উপস্থিত সকল সদস্যদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে তিনি আরো বলেন যে, এনজিও সমূহ বিভিন্ন স্তরে অনেক ভালো কাজ করছে। বিশেষতঃ নারীর ক্ষমতায়ন, দারিদ্র্য বিমোচন, স্বাস্থ্য ও পুষ্টি,জীবিকায়ন এবং খাদ্য নিরাপত্তা ইত্যাদি ক্ষেত্রে নিবিড়ভাবে কাজ করে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি)এর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যাপক ভুমিকা রেখে চলেছে ।
তিনি বলেন এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অত্যন্ত দক্ষতা ও সুপরিকল্পিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে । এসডিজি এর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অগ্রযাত্রাসহ সকল এনজিও সমূহে একজন ফোকাল পারসন নিয়োগ দেয়ার পরামর্শ দেন, তিনি যেন শুধু টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) নিয়ে কাজ করতে পারে। যেখানে একটি সংস্থা তার কাজকে আরো বড় পরিসরে প্রদর্শন করা সম্ভব হবে। এক্ষেত্রে ”অগ্রযাত্রা’সহ সকল সংস্থার অগ্রগতি তরান্বিত হবে।
অগ্রযাত্রা’র অফিস পরিদর্শনকালে প্রধান অতিথির সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ আরিফুর রহমান–প্রধান নির্বাহী(ইপসা)মোস্তফা কামাল আকন্দ– সহকারী পারচালক(কোষ্ট ট্রাষ্ট)এবং আল্লামা ফয়জুল্লাহ ফাউন্ডেশন এর বোরহান উদ্দিনসহ অন্যান্য এনজিও কর্মকর্তাবৃন্দ। পরিদর্শনকালে অগ্রযাত্রার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নীলিমা আক্তার চৌধুরী ও নির্বাহী পরিচালক মোঃ হেলাল উদ্দিন তাদের বক্তব্য ও উপস্থাপনায় সংস্থার যাবতীয় কার্য্যক্রমের চিত্র তুলে ধরেন।
অগ্রযাত্রা’র কর্মীবৃন্দের একনিষ্টতায় ও কার্য্যক্রমের সার্বিক চিত্র পরিদর্শন করে প্রধান অতিথি সংস্থার আরো উত্তর উত্তর সফলতা কামনা ও সন্তোষ জ্ঞাপন করেন ।

Top