আনোয়ার চাতরী-চৌমুহনী বাজারের নো-পার্কিং এ গাড়ী রেখে রাস্তা দখল

received_314905439296017.jpeg

ডি এইচ মনসুর:
চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতরী-চৌমুহনী বাজারের ফুটপাথ অবৈধ দখলমুক্ত হলেও বন্ধ হয়নি অবৈধ পার্কিং। নো-পার্কিং জোনে বড় করে সাইনবোর্ডে ‘নো-পার্কিং’লেখা থাকলেও সেইসব স্থানে অহরহ গাড়ি রেখে রাস্তা দখল করা হচ্ছে। যার ফলে সৃষ্টি হচ্ছে যানজট।
কিছুদিন আগেও ব্যস্ততম এ বাজারের সিইউএফএল ও পিএবি সড়কের ফুটপাথ ছিল অবৈধ দখলে। তাছাড়া অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে প্রায় সারাক্ষণই যানজট লেগে থাকত। সম্প্রতি উপজেলা প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপে সড়ক দুটির ফুটপাথ থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হয়। সেইসঙ্গে রাস্তার দুপাশ প্রশস্তকরণের মধ্যদিয়ে যানজটের মাত্রা অনেকটাই কমে আসে। কিন্তু সড়কে অবৈধভাবে অটোরিকশা পার্কিংয়ের কারণে পুরোপুরি যানজট মুক্ত হয়নি।

সরেজমিন দেখা যায়, ব্যস্ততম এ সড়ক দিয়ে দূরপাল্লার শত শত গাড়ি চলাচল করছে। যানজট নিরসনের লক্ষ্যে বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে ‘নো পার্কিং’ সাইনবোর্ড টাঙিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। তা অমান্য করে রাস্তার উভয় পাশে অবৈধভাবে গাড়ি পার্ক করে রাখা হয়। তবে পুলিশ প্রশাসনকে এ অবৈধ পার্কিং বন্ধে কোনো পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি। স্থানীয়দের অভিযোগ, যানজট নিরসনে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা এসব গাড়ি থেকে নিয়মিত মাসোহারা নেয়। যে কারণে নো পার্কিং জোনকে রীতিমতো গাড়ির স্ট্যান্ড বানিয়েছে অটোরিকশার চালকেরা। এতে করে গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কে প্রায় প্রতিদিন দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

এ ব্যাপারে ট্রাফিক পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর (টিএসআই) নজরুল ইসলাম এর মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) গৌতম বাড়ৈ জানান, নো-পার্কিং জোনে কোনো ধরনের গাড়ি পার্কিং করা যাবে না। এ ব্যাপারে সেখানে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশদের বলা হয়েছে।

Top