চট্টগ্রামে দু’দিন ব্যাপী ৭ম জাতীয় ট্রপিক্যাল মেডিসিন ও টক্সিকোলোজি সম্মেলন:

doctor.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

দু’দিন ব্যাপী ৭ম জাতীয় ট্রপিক্যাল মেডিসিন ও টক্সিকোলোজি কনফারেন্স ১২-১৩ অক্টোবর ২০১৮ চট্টগ্রাম ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগ, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজ (ইওঞওউ), বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ফর এ্যাডভান্সমেন্ট অব ট্রপিক্যাল মেডিসিন (ইঅঅঞগ) এবং টক্সিকোলোজি সোসাইটি অব বাংলাদেশ (ঞঝই) এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সংক্রামক ব্যাধি ও বিষক্রিয়া জনিত রোগ সমূহ সম্বন্ধে অনুষ্ঠিত এই বৈজ্ঞানিক সম্মেলনটি প্রতি বৎসর অনুষ্ঠিত হয়। এবার অনুষ্ঠিত হল ৭ম জাতীয় সম্মেলন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ, মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক অশোক কুমার দত্ত এবং ইওঞওউ এর পরিচালক অধ্যাপক এম এ হাসান চৌধুরী এর নেতৃত্বে চিকিৎসকদের সক্রিয় অংশগ্রহণে সম্পাদিত এই সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য্য, অধ্যাপক কনক কান্তি বড়–য়া।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক মোঃ ইসমাইল খান উপাচার্য্য, চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ্অধ্যাপক মোঃ মুজিবুল হক খান প্রেসিডেন্ট, বিএমএ, চট্টগ্রাম, অধ্যাপক সেলিম মোঃ জাহাঙ্গীর অধ্যক্ষ, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ, ডাঃ মোঃ মহিউ্িদ্দন ওসমানি জয়েন্ট চিফ (প¬্যানিং উইং), স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মহসিন উদ্দিন আহমেদ পরিচালক, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ডাঃ মোঃ ফয়সাল উকবাল চৌধুরী জেনারেল সেক্রেটারী বিএমএ, চট্টগ্রাম এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন অধ্যাপক সুযত পাল, জেনারেল সেক্রেটারী, অর্গানাইাজিং কমিটি ৭ম ব্যনট্রপটক্স।

সংক্রামক ব্যাধি, বিষক্রিয়া ও রিফিউজি স্বাস্থ্য সমস্যা বিষয়ে প্রায় ষাটটি বৈজ্ঞানিক উপস্থাপনায় চারশত দেশ বিদেশের গবেষক, মেডিকেল শিক্ষক, প্রশিক্ষনার্থী চিকিৎসক ও প্রতিথযশা চিকিৎসা বিজ্ঞানী অংশগ্রহণ করেন ও আলোচনায় অংশ নেন।

২ দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে ম্যালেরিয়া, যক্ষ্মা কালাজ¦র, জলাতঙ্ক, সর্পদংশন, রিফিউজি স্বাস্থ্য সমস্যা, সংক্রামক ব্যাধি ও বিষক্রিয়া জনিত জাতীয় স্বাস্থ্য সমস্যার উপর বৈজ্ঞানিক নিবন্ধ উপস্থাপন করা হয়।

বাংলাদেশে বিদ্যমান বিভিন্ন ধরণের প্রচলিত ও নতুন আবির্ভূত সংক্রামক ব্যাধি ও বিষক্রিয়া এবং সর্পদংশনের ব্যবস্থাপনা উন্নয়নে সরকারের উদ্যোগে অব্যাহত সহযোগিতা প্রদানে ইঅঅঞগ ও ঞঝই কাজ করবে বলে ’ট্রপটক্স চট্টগ্রাম ঘোষনা’র মাধ্যমে শেষ হয়। এ ঘোষনার সুপারিশমালা বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের প্রাসঙ্গিক বিভাগ সমূহের বিবেচনার জন্য পেশ করা হবে।

Top