২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় ঘিরে রাঙ্গুনিয়ায় আওয়ামীলীগের আনন্দ মিছিল

received_393264448078964.jpeg

সরোয়ার আজম,রাঙ্গুনিয়া:

২১শে আগস্ট ২০০৪ সালে গ্রেনেড হামলার রায়কে ঘিরে রাঙ্গুনিয়ায় কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়।

রায়কে ঘিরে কোন পক্ষ যাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে তাই সকাল থেকেই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পুলিশের অবস্থান ও টহল অব্যাহত ছিল। কাপ্তাই সড়কের চন্দ্রঘোনার লিচুবাগান হতে তাপবিদ্যুৎ পর্যন্ত পুলিশ টহল দিতে দেখা গেছে।

পুলিশের পাশাপাশি সড়কে অবস্থান নিয়েছে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভূঁঞা বলেন, ‘রায়কে ঘিরে যেকোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে ছিল। রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশের পাশাপাশি চট্টগ্রাম পুলিশ লাইন থেকেও অতিরিক্ত পুলিশ আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে মাঠে কাজ করেছে। উর্ধ্বতন মহলের পরবরর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত পুলিশের বিশেষ এই অবস্থান অব্যাহত থাকবে।’

এদিকে রায় ঘোষণার পর রাঙ্গুনিয়া আওয়ামী পরিবারের ব্যানারে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় তাৎক্ষণিক আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইছাখালী সদরে অনুষ্ঠিত আনন্দ মিছিলটি কাপ্তাই সড়ক প্রদক্ষিন করে শেষ হয়। মিছিলে অংশ নেন রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র ও চট্টগ্রাম উত্তরজেলা আওয়ায়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহজাহান সিকদার, উপজেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সামশুল আলম তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেন খাঁন, সদস্য এমরুল করিম রাশেদ, পৌরসভা আওয়ামীলীগ সভাপতি মাস্টার আসলাম খাঁন, সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার কাউন্সিলর মোহাম্মদ সেলিম, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুচ, সিনিয়র সহসভাপতি বি.কে লিটন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দিন আহম্মেদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন রিয়াজ, সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম, চট্টগ্রাম উত্তরজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হালিম তালুকদার, ছাত্রলীগ নেতা ইউসুফ রাজু, রাসেল রাসু প্রমুখ।

উপজেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সামশুল আলম তালুকদার বলেন,’রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপির-জামায়াত যেন কোন নাশকতা করতে না পারে তাই পুলিশের পাশাপাশি উপজেলা আওয়ামীলীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়েছে। রায় ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আওয়ামীলীগ আনন্দ মিছিল করে। রায়ে আমরা সন্তুষ্টি জানাচ্ছি, তবে এই ঘটনার মূল হোতা তারেক জিয়াকে ফাঁসি দিলে আরো বেশি সন্তুষ্ট হতাম।’

Top