ইসলামপুরে আ’লীগের অভ্যন্তরীণ বিরোধ চরমে- এমপি দুলালকে মনোনয়ন না দেওয়ার দাবিতে চলছে টানা কর্মসূচি

42128109_2172853332974746_5684172569515655168_n.jpg

রোকনুজ্জামান সবুজ,ইসলামপুর প্রতিনিধি :
ইসলামপুরে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ বিরোধ চরম আকার ধারণ করেছে। আসন্ন সংসদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান এমপি ফরিদুল হক খান দুলালকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার দাবিতে চলছে টানা কর্মসূচি। এরই ধারাবাহিকতায় ষষ্ঠ দিনের মতো শনিবার বিকালে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা ও পথসভা কর্মসূচি পালন করেছে দলীয় বিক্ষোব্ধ নেতাকর্মীরা।

উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালামের নেতৃত্বে ওই মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা এবং পথসভা কর্মসূচি পালন করা হয়।
মোটরসাইকেল শোভাযাত্রাটি ইসলামপুর উপজেলা শহরের থানা মোড় থেকে বের হয়ে উপজেলার চরদাতনা হয়ে বটচর,পোড়াচর পুরাতনবাজার,সরদারপাড়া বাজার,পোড়াবাড়ী মোড়,চন্দনপুর,কড়ইতলা বাজার, ঝগড়ারচর বাজার ও টানা ব্রিজ পথসভা করেন। পথসভা করেন।

কর্মসূচির ষষ্ঠ দিনের মতো ওইসব পথসভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার জাকিউল হক, আ’লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সরদার মাকছুদুর রহমান লাভলু, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিয়াউল হক জুয়েল, মাহাবুবুর রহমান উজ্জল, সাপধরী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি শাহা আলম মন্ডল, নোয়ারপাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, গাইবান্ধা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস, কুলকান্দি ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ কাজী, আ’লীগ নেতা নারায়ন মোদক, জহুরুল ইসলাম, আমিরুল ইসলাম, আলামিন এজেল, মোবারক হোসেন, শহীদুল্লাহ আকন্দ ও রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।
উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার জাকিউল হক বক্তব্যে বলেন, এমপি দুলালের অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির বিরুদ্ধে নেতাকর্মীরা এখন ঐক্যবদ্ধ। এমপি দুলালের হীনকর্মান্ডের বিরুদ্ধে আমরা টানা কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছি।

উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার জাকিউল হক বলেন, ইসলামপুরের আওয়ামীলীগের ত্যাগী নেতা-কর্মীরা এখন ঐক্যবদ্ধ। তারা ঐক্যবদ্ধ অবস্থান নিয়েই ইসলামপুর উপজেলার সর্বত্রই একসাথে মিলেমিশে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এমপি দুলালের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।

উপজেলা আ’লীগের যুবনেতা মাহবুবুর রহমান উজ্জ্বল, ফরিদুল হক খান দুলাল এমপির প্রত্যক্ষ মদদে বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদকালে অসংখ্য নেতা-কর্মীদের অবমুল্যায়ন হয়েছে। বিএনপি সুবিধাবাদীদের আ’লীগে অনুপ্রবেশ করিয়ে গত ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক অনুদান দিয়ে চেয়ারম্যান বানিয়েছে। এছাড়া বিএনপি-জামায়াতের লোকজনকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। দুলাল এমপির এহেন কর্মকান্ডের কারণে ত্যাাগী ও পরীক্ষিত নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা চরমভাবে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। এই অবস্থায় দলকে সুসংগঠিত রাখতে নেতা-কর্মীরা এমপি দুলালকে বর্জন করতে ঐক্যবদ্ধ অবস্থান নিয়েছেন।

উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম বক্তব্যে বলেন, আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ইসলামপুর আসনে বর্তমান এমপি ফরিদুল হক খান দুলালকে আ’লীগের মনোনয়ন দেওয়া হলে নিশ্চিত নৌকার ভরাডুবি হবে। সেকারণেই এমপি দুলালকে বাদ দিয়ে বিকল্প কাউকে মনোনয়ন দিলে আমরা নৌকার বিজয় দেখতে পারবো।

উল্লেখ্য, ইসলামপুরে আ’লীগের অভ্যন্তরীণ বিরোধ চরম আকার ধারণ করেছে। খোদ উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালামসহ শত শত নেতাকর্মী এমপি দুলালের অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে। এছাড়া এ আসনের উপজেলা আ’লীগের সভাপতি বর্তমান এমপি দুলালকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার দাবিতে পরীক্ষিত নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা, গণসংযোগ ও পথসভা কর্মসূচি পালন করে চলেছে।

Top