একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন : দিনাজপুর-১ আসনে এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপালের জনপ্রিয়তা শীর্ষে

received_1814141558641589.jpeg

রায়হান কবির,কাহারোল(দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুর জেলার (কাহারোল – বীরগঞ্জ) উপজেলা নিয়ে দিনাজপুর – ১ আসন গঠিত, যেখানে ১৭ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা আছে। দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত আসনটি ধরে রেখেছেন বিগত দিনের আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি’রা ও বর্তমানে দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি,তবে দলীয় কোন্দলের কারনে ২০০১ সালে জামায়াতের দখলে চলে গিয়েছিল।পরবর্তীতে দিনাজপুর-১ আসনটি ২০০৮ সালের ভোটের মধ্য দিয়ে আওয়ামীলীগের দখলে আনতে সক্ষম হোন মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি। তবে একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এই আসনে কে হচ্ছেন কোন দলের প্রার্থী তা নিয়ে নানা গুন্জন চলছে। অন্যদিকে বিএনপিতে একাধিক প্রার্থী থাকলেও জামায়াত আবারও এ আসনে তাদের প্রার্থী নিশ্চিত করতে মরিয়া। আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল পরপর ৩ বার এ আসনে নির্বাচিত হয়েছেন। আর জামায়াত প্রার্থী তিনবার বিপুল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছেন মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র কাছে। এবারও এ আসনে এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল’কে মনোনয়ন দিলে নিশ্চিত নৌকার জয় আসবে বলে আওয়ামী লীগের নেত্ববৃন্দরা সহ দুই উপজেলার সাধারণ ভোটারেরা মনে করেন। তারা আরোও জানান, অন্য কাউকে মনোনয়ন দেয়া মানেই ২০০১ সালের মত জামায়াত-বিএনপির দখলে চলে যাবে আসনটি।মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন ও মানবতার জন্য জনপ্রিয়তায় শীর্ষে অবস্থান করে নিয়েছেন। তিনি সক্রিয়ভাবে মাঠে রয়েছেন আওয়ামীলীগের নেতা – কর্মীদের সাথে নিয়ে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও সাফল্য গাঁথা গৌরবময় কার্যক্রমের প্রচার করছেন বিভিন্ন সভা সমাবেশের মাধ্যমে। দিনাজপুর -১ আসনের নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন গ্রামে, হাটে বাজারে মিছিল মিটিং করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কথা ও সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিভিন্ন গৌরবময় অর্জনের কথা প্রচার করছেন। দেশের উন্নয়নের জন্য নৌকার পক্ষে ভোট চাচ্ছেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতা-কর্মীরা জানান, তৃনমূল থেকে বেড়ে উঠা মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি একজন খাঁটি দেশ প্রেমিক ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব । তিনি দিনাজপুর -১ আসনের মানুষের জন্য নিবেদিত প্রাণ রাজনৈতিক নেতা। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের প্রাণপ্রিয় এ নেতা দিনের বেশির ভাগ সময় কাটান দলীয় কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে। দলীয় নেতা-কর্মীদের আস্থাভাজন এ নেতা সব সময় দলীয় নেতা-কর্মীদের পাশে থেকে শক্তি সাহস যোগান। দলের প্রতিটি কর্মসূচীতে তার সরব উপস্থিতি দলীয় নেতা-কর্মীদের দারুনভাবে অনুপ্রেরনা জোগায়।বর্তমান এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেন, একটি বিরোধী পক্ষ তার বিরুদ্ধে নানা ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। সেসব অভিযোগের কোন ভিত্তি নেই। তার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক জীবনের ইমেজ নষ্ট করতে তারা উঠেপড়ে লেগেছে। তিনি এ আসন থেকে ৩ বার এমপি নির্বাচিত হয়েছেন এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা’র পক্ষে এ অঞ্চলের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তিনি আরোও জানান, মনোনয়ন দিলে নেতা – কর্মী সহ সাধারণ ভোটারদের সাথে নিয়ে আবারও জননেত্রী শেখ হাসিনা’কে আসনটি উপহার দিতে পারবেন।
বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক অন্যতম সদস্য সিদ্দিক-লিটন জানান,ব্যাপক উন্নয়ন হওয়ার কারনে আবারো দিনাজপুর -১ আসনের জনগণ নৌকা’কে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবেন বলে আমাদের বিশ্বাস।বীরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাবেক নেতারা জানান, আবারও যদি মনোরঞ্জন শীল গোপাল’কে মনোনয়ন দেয়া হয়,গত নির্বাচনের তুলনায় এবার বিপুল ভোটে জয় লাভ করবেন।বীরগঞ্জ উপজেলার সাধারণ ভোটারদের মধ্যে কথা বললে উনারা জানান দিনাজপুর -১ আসনে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি’র কোন বিকল্প নেই।কারন তিনি হলেন একজন পরিশ্রমী নেতা,সাধারণ জনগণের বিশ্বস্ত, তাকেই মনোনয়ন দিলে আবারও জননেত্রী শেখ হাসিনাকে দিনাজপুর -১,আসনটি উপহার হিসেবে ও দখলে রাখা সক্ষম হবে।কাহারোল উপজেলার বর্তমান আওয়ামীলীগ সভাপতি এ.কে এম ফারুক ও বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও দশ দিনাজপুর জেলা পরিষদের সদস্য নূর ইসলাম উভয়ে একমত পোষণ করে বলেন,আমাদের দেখা অনুযায়ী যে ব্যাক্তিটি রাজনৈতিক জীবন থেকে শুরু করে বর্তমান সময়ে যে ভাবে মানুষের পাশে থেকে কাজ করে চলেছেন যা রাজনৈতিক ব্যাক্তি হিসেবে আমাদের জন্য উনি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।কারন উনার কাছে প্রত্যেকটি দিন সমান ভাবে কেটে যায় নেতা – কর্মী ও সাধারণ মানুষের বিভিন্ন ধরনের সমস্যাধানে,উনার কাছে সারাদিনের প্রত্যেকটি কার্যক্রমেই জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশ অনু্যায়ী দলীয় কর্মকান্ডের মধ্যেই পড়ে।তাই উনারা আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপিকেই প্রত্যাশা করেন।

Top