জগন্নাথপুরে আ.লীগের দিপাল ও আলাল গ্রুপের দ্বন্ধের অবসান

poto-1-4.jpg

স্টাফ রিপোর্টার(সুনামগঞ্জ );
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে আ.লীগের দিপাল ও আলাল গ্রুপের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক দ্বন্ধের অবসান হওয়ায় নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণ চাঞ্চল্যতা ফিরে এসেছে। বিশেষ করে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকার দল আ.লীগের দুই গ্রুপের দ্বন্ধের অবসান হওয়ায় এলাকায় স্বস্তি ফিরে এসেছে। সেই সাথে স্থানীয় জনতার সাদুবাদ কুড়িছেন উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা।
জানাগেছে, বিগত ৪ বছর ধরে জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক দিপক কান্তি দে দিপাল ও সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগ নেতা আলাল হোসেন রানার মধ্যে রাজনৈতিক দ্বন্ধ চলে আসছিল। তাদের দলীয় গ্রুপিংয়ের কারণে কয়েকবার সংঘর্ষও হয়।
অবশেষে ১৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার প্রথমে জগন্নাথপুর থানার ওসি মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরীর হস্তক্ষেপে দুই গ্রুপের দ্বন্ধের অবসান হয়। পরে আবার আ.লীগের শীর্ষ নেতাদের মধ্যস্থতায় দ্বিতীয় বারের মতো তাদের দ্বন্ধের অবসান হয়েছে।
তাদের দ্বন্ধের অবসান হওয়ায় বিকেলে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের নিয়ে স্থানীয় কলকলিয়া বাজারে কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়। কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফখরুল হোসেনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক দিপক কান্তি দে দিপাল ও যুগ্ম-সম্পাদক মাস্টার মিজানুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ সিদ্দিক আহমদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জগন্নাথপুর উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আকমল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু ও সাবেক চেয়ারম্যান শিক্ষাবিদ সিরাজুল ইসলাম।
বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আবদুল কাইয়ূম মশাহিদ, আবদুল মালিক, মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক কুতুব উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক, আ.লীগ নেতা হাজী সাজাদ মিয়া, পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইকবাল হোসেন ভূইয়া, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শুকুর আলী ভূইয়া, সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগ নেতা আলাল হোসেন রানা, কলকলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক ডা.আবদুল আহাদ, ছাত্রলীগ নেতা জুবায়ের হোসেন, অলিউর রহমান প্রমূখ। #

Top