আগামীকাল ঘড়িটা যেন ঠিক থাকে

po-1.jpg

—————————-
আগামীকাল থেকে শুরু হবে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা | পরীক্ষা কেন্দ্রে ঘড়িসহ যেকানোে ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করা নিষিদ্ধ |
একদিকে সময়ের সঠিক ব্যবহার করে এক ঘন্টার মধ্যে সকল প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে, অন্যদিকে ঘড়ি ব্যবহার করা নিষিদ্ধ, তাই সময়ের সঠিক প্রয়োগের ক্ষেত্রে পরীক্ষার কেন্দ্রে ঘড়ি থাকা বাধ্যতামূলক |
অথচ যেসব পরীক্ষা কেন্দ্রে বা হলে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তার বেশির ভাগ কেন্দ্রে কোনো ঘড়ি থাকেনা, যা একজন শিক্ষার্থীর জন্য খুবই বিব্রতকর এবং সময়ের প্রতি খেয়াল রেখে প্রশ্নপত্র সমাধানের ক্ষেত্রে একটি বড় বাধা | ২০১৬ সালে জবিতে পরীক্ষা দিতে গিয়ে আমিও যার সম্মুখীন হয়েছিলাম | সোশাল সাইন্স বিল্ডিং এর একটি রুমে আমি পরীক্ষা দিয়েছিলাম যেখানে পরীক্ষার সময় ছিল বিকাল তিনটা থেকে চারটা কিন্তু ঘড়িতে তখন সময় ছিল সকাল পনে দশটা এবং ঘড়িটি ছিল বন্ধ | আর এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে আমি জানি যে, আমাদের পরীক্ষার কেন্দ্র গুলোতে পর্যাপ্ত ঘড়ি নেই কিংবা থাকলেও অনেকগুলো নষ্ট |তাই আশা করব, আগামীকাল থেকে শুরু করে যতগুলো পরীক্ষা হবে এবং যেসব স্কুল,কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে প্রতিটা কেন্দ্রে ঘড়িটা যেন অন্তত ঠিক থাকে |

লেখকঃ মুহাম্মদ হাসান মাহমুদ ইলিয়াস
শিক্ষার্থী, দর্শন বিভাগ ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় |

Top