বরিশালে একের পর এক চমক দেখাচ্ছেন নব নির্বাচিত সিটি মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহ

-আব্দুল্লাহ.jpg

বরিশালঃ গত ৩০ জুলাই সম্পন্ন হয়েছে বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচন। নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে বরিশাল মহানগর আ’লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বিপুল ভোটের ব্যাবধানে মেয়র হিসেবে বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।নির্বাচিত হওয়ার পর পরই বরিশাল সিটির উন্নয়নকল্পে তার ব্যাতিক্রী চিন্তা ভাবনা ও তার বহি: প্রকাশ ইতোমধ্যেই নগরবাসীর মাঝে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে। সাধারন জনগনের ভাবনা, তিনি যদি তার এই চিন্তা ভাবনার ধারাবাহিকতা বজায় রাখেন তবে বরিশাল সিটি একটি মাদক মুক্ত তিলোত্ত্বমা নগরীতে পরিনত হবে। নির্বাচিত হওয়ার পর পরই সর্বপ্রথম দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি হুশিয়ারী উচ্চারন করেছেন যাতে করে কোন ধরনের চাঁদাবাজি কিংবা সন্ত্রাসের সাথে তাদের সংস্পর্ষ না থাকে।
ইতোমধ্যে পেট্রোল পাম্পে এক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে তার নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে নিয়েছেন কঠোর ব্যাবস্থা। কোন ধরনের প্রটোকল ছাড়াই নগরময় ঘুড়ে বেড়াচ্ছেন রিক্সায়। দেশ ব্যাপি ঘটে যাওয়া ছাত্র আন্দোলনের অংশ হিসেবে বরিশালে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে অত্যন্ত সুনিপূন ভাবে বিচক্ষনতার সহিত মোকাবেলা করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মনিকোঠায় ইতি মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন।
এমনকি আন্দোলন কালে এক শিক্ষার্থীর নিজের জমানো টাকায় কেনা মোবাইল হারিয়ে গেলে সে বিষয়টিও তার নজর এড়ায়নি। তিনি নিজ বাসায় মেয়েটিকে ডেকে তাকে একটিু নতুন মোবাইল উপহার দেন। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের দাবি পূরনের অংশ হিসেবে ইতি মধ্যেই ব্যাক্তিগত খরচে নগরীর সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্টানের সামনে রোড সাইন এবং জেব্রা ক্রোচিং নির্মানের কাজ শুরু করেছেন।
নির্বাচনে জয়ী হবার পরে শোকের মাসের প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের অভিপ্রায়ে কোন ধরনের বিজয় মিছিল কিংবা শুভেচ্ছা গ্রহন থেকে নিজেকে বিরত রেখে নগরবাসীর কাছে নিজেকে অনুন্ন উচ্চতায় স্থাপন করেছেন। নির্বাচনে জয়ী হবার পর পরই কৃতজ্ঞতা প্রকাশের অংশ হিসেবে ইতি মধ্যে দলীয় নেতাকর্মী ও নব নির্বাচিত কাউন্সিলরদের নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করেছেন। জিয়ারত করতে ছুটে গেছেন মরহুম চরমোনাইর পীর সাহেবের মাজার, মির্জাগঞ্জ ইয়ার উদ্দিন খলিফার মাজার। দোয়া নিয়েছেন ছরছিনা পীর সাহেবসহ দক্ষিনাঞ্চলের আলেম বুজুর্গদের।
প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন নিজেকে বরিশালবাসীর সেবায় বিলিয়ে দিতে। ইশতেহারে নয় উন্নয়ন কাজের মাধ্যমেই নিজের যোগ্যতা প্রমান করবেন বলে জানিয়েছেন নির্বাচনের পূর্বেই। আর তার নির্বাচন পরবর্তী কার্যক্রম তারই ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে দেখছেন বরিশাল নগরবাসী।

Top