সরিষাবাড়ীতে মর্জিনা নামের এক গৃহবধু পলায়ন ॥ থানায় অভিযোগে গ্রেফতার ১

download-6.jpg

মাসুদুর রহমান,সরিষাবাড়ী:
জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে মর্জিনা (১৮) নামের এক গৃহবধুর পালিয়ে গিয়েছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে। গত শনিবার সকালে উপজেলার কামরাবাদ গ্রামে বাবার বাড়ী থেকে মর্জিনা পালিয়ে যায়। পরে তাকে দেখতে না পাইয়া সম্ভাব্য সকল স্থানে খোজাখুজি করিয়া কোথাও না পাওয়ায় অবশেষে গত সোমবার রাতে মেয়ের পরিবার সরিষাবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
সরো জমিন ও থানা সুত্রে জানা যায় ,উপজেলার কামরাবাদ গ্রামের মকসেত আলীর মেয়ে মর্জিনা প্রতিবেশী জহুরুল ইসলামের ছেলে লালনের সহযোগিতায় বাড়ী থেকে পালিয়ে যায় । বিষয়টি বুঝতে পেরে এলাকার মাতাব্বরা সন্ধ্যার পর থেকেই লালনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তিনি অস্বীকার হলে মাতাব্বররা সরিষাবাড়ী থানায় অবগত করে। অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খানের নির্দেশে এস আই আনোয়ার ও এ এসআই আনসার আলী বন্ধু লালনকে থানায় নিয়ে আসে। থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করিলে বন্ধু লালন মর্জিনা কিভাবে পালিয়েছে তার কিছু বিবরন দেয় পুলিশেকে। তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা না দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে দু-পক্ষের সমঝোতায় লালনকে ২৫ হাজার টাকায় দেন দরবারে ছাড়িয়ে নেয় তার পরিবার। এখন পর্যন্ত মর্জিনাকে উদ্ধার করা হয়নি।
জানতে চাইলে মুঠোফোনে এস আই আনোয়ার জানায়, জিজ্ঞাসাবাদ এর জন্য লালনকে আনা হয়েছিল। মেয়ে খুজাখুজি করবে বলে মেয়ে ও ছেলের পরিবার লালনকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছে। মুলত মেয়ের বন্ধু লালন । সে জড়িত না।
এ বিষয়ে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান মুঠোফোনে এ প্রতিবেদক মাসুদুর রহমানকে বলেন,থানায় নিয়ে আসা হয়েছিল আবার চলেও গেছে।
জামালপুর জেলার পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেনের নিকট মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করিলে তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

Top