গম নিয়ে সাগরে ডুবেছে লাইটারেজ জাহাজ

received_1817285728399020.jpeg

জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম ব্যুরো:

চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙ্গরের কাছে সন্দ্বীপ চ্যানেলে দুই নৌযানের সংঘর্ষে গমবোঝাই একটি লাইটারেজ জাহাজ ডুবে গেছে।

মঙ্গলবার ভোর রাতে বন্দর সীমা থেকে পাঁচ নটিক্যাল মাইল দূরে এমভি পাটগাটি-২ নামের জাহাজটি ডুবে যায় বলে চট্টগ্রাম বন্দরের সচিব ওমর ফারুক জানান।

তিনি বলেন, ওই জাহাজে থাকা ১৪ জন নাবিকের সবাইকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় বন্দর চ্যানেলে জাহাজ চলাচলে কোনো সমস্যা হচ্ছে না।

বন্দরের কাছে সাগরের গভীরতা কম হওয়ায় বিদেশ থেকে আমদানি করা পণ্য নিয়ে আসা বড় জাহাজগুলো সরাসরি জেটিতে ভিড়তে পারে না।

সেসব জাহাজ গভীর সমুদ্রে নোঙ্গর করে রাখা হয় এবং ছোট আকারের লাইটারেজ জাহাজের মাধ্যমে ধাপে ধাপে সেই পণ্য খালাস করে নিয়ে আসা হয় ডাঙ্গায়।

বহির্নোঙ্গরে থাকা এরকম একটি বড় জাহাজ থেকে ১১০০ টন গম নিয়ে নারায়ণগঞ্জের দিকে যাচ্ছিল এমভি পাটগাটি-২।

ওই জাহাজের উদ্ধার হওয়া নাবিক নূর উদ্দিন বলেন, এমভি আবদুল্লাহ আসিফ-১০ নামে একটি লাইটারেজ রাত আড়াইটার দিকে সন্দ্বীপ চ্যানেলে পাটগাটিকে ধাক্কা দেয়।

এতে পাটগাটির তলা ফুটো হয়ে যায় এবং জাহাজটি দ্রুত সাগরে ডুবে যায়।

নূর উদ্দিন জানান, তারা জাহাজে মোট ১৪ জন ছিলেন। জাহাজডুবির সময় আশপাশে থাকা অন্যান্য লাইটারেজ ও ট্রলার তাদের কয়েকজনকে উদ্ধার করে। পরে নৌবাহিনীর জাহাজ এসে সকালের মধ্যে বাকি সবাইকে উদ্ধার করে।

Top