ঠাকুরগাঁও জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে গো-খাদ্যের তীব্র সংকট।।।

received_1827076780717324.jpeg

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানার ৫ ইউনিয়নে সর্বত্রই গো খাদ্যের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। অধিক মূল্যে গরুর প্রধান খাবার খড় পাওয়া যাচ্ছেনা।কোন উপায় না পেয়ে গরুর মালিকেরা কচুরিপানা,লতাপাতা, বাঁশপাতা সহ অনেক কিছু সংগ্রহ করে গরুকে খাওয়াচ্ছেন। ফলে অপুষ্টিতে ভুগছে হাজার হাজার গরু-ছাগল। গো-খাদ্যে ও অগ্নিমূল্যে কৃষক ও গৃহস্থরা তাদের গবাদিপশু নিয়ে চোখে-মুখে সর্ষে ফুল দেখছেন। অনেকে কমদামে গরু ছাগল বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন। সাম্প্রতিক সময়ে অতি বৃষ্টির কারনে কৃষকের জমির ফসল ডুবে যাওয়ার সাথে সাথে গরুর প্রধান খাদ্য সংরক্ষিত খড় সম্পুর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে কৃষক ও গৃহস্থরা গরুর খাদ্য নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন। এমনিতেই বর্তমানে চাল, সবজি সহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে সাধারন মানুষ দিশেহারা, তার উপর গবাদিপশুর খাদ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে গরু, ছাগল বাঁচাতে পারেন না এ আসঙ্কায় অনেক কৃষক, গৃহস্থরা তাদের গরু, ছাগল অল্প দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন। ঘনিবিষ্টপুরের সাবেক গ্রাম পুলিশ আবুল বাশার ৪ আঁটি খড় ৪০ টাকায় কিনে বাড়ি ফিরছেন আর বিরবির করে বলছিলেন অসম্ভব দামে খড় কিন্তে না পারায় গরু ছাগল আর রাখা যাবেনা বলে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন।

Top