বাইশারীতে অপহরনের দুইদিন পর মুক্তিপনের বিনিময়ে ছাড়া পেল রাবার বাগান ব্যবস্থাপক

Rabar-Bagan-2.jpg

মো: শামীম ইকবাল চৌধুরী (নাইক্ষ্যংছড়ি) বান্দরবান:
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারীতে ষ্টার রাবার বাগান ব্যবস্থাপক আরিফ উল্লাহ অপহরনের দুইদিন পর ৩ লক্ষ টাকা মুক্তিপনের বিনিময়ে ছাড়া পেল সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হাত থেকে। গত ১ আগষ্ট বুধবার বেলা সাড়ে বারোটার সময় বাগানের কাজ শেষে ফেরার পথে বাইশারী-আলীক্ষ্যং সড়কের মাল্টাবাগান নামক স্থান থেকে মোটর সাইকেল থাকিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নিয়ে যায় ৭/৮ জনের মুখোশ পরিহীত সন্ত্রাসী। অপহরনের পর থেকে প্রথমে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী করে আসছিল। দরকষাকষির এক পর্যায়ে ৩ লক্ষ টাকা মুক্তিপনের বিনিময়ে শুক্রবার ভোর রাতে ইউনিয়নের পিএইচপি রাবার বাগান ৭নং প্লট নামক স্থানে তাকে ছেড়ে দেয়।
গত ১ আগষ্ট বুধবার রাবার বাগান ম্যানেজার আরিফ উল্লাহ অপহরনের পর থেকে পুলিশ-বিজিবি ও সেনা সদস্যরা রাতদিন গহীন পাহাড়ে অভিযান পরিচালনা করে। কিন্তু সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের কবল থেকে অপহৃত আরিফ উল্লাহকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।
অপহরনকারী চক্রের হাত থেকে ফিরে আসা আরিফ উল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, তাকে ধরে নিয়ে যাওয়ার পর থেকে চোখ বাঁধা অবস্থায় রেখেছিল এবং দূর্গম পথ পায়ে হেটে অতিক্রম করতে হয়েছে। তাকে কোন ধরনের মারধর করা হয়নি। সময়মত নামাজ পড়ার সুযোগ ও খাবার দেওয়া হয়। কিন্তু মুক্তিপনের জন্য মোবাইল ফোনে আত্বীয়-স্বজনের নিকট বারবার চাপ প্রয়োগ করছিল।
উল্লেখ্য, বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারীতে দীর্ঘদিন যাবৎ অপহরনকারী চক্রের সদস্যরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এ পর্যন্ত রাবার বাগান শ্রমিক, সাধারন জনগন, ব্যবসায়ী, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ প্রায় অর্ধশতাধিক লোকজনকে অপহরন চক্রের সদস্যরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মুক্তিপন আদায় করে। এ পর্যন্ত মুক্তিপন ছাড়া কোন লোক তাদের হাত থেকে রেহাই পায়নি। উক্ত ঘটনায় বাইশারীতে কর্মরত রাবার বাগানের ব্যবস্থাপক, সুপারভাইজার ও শ্রমিক সহ হাজার হাজার মানুষ অপহরন আতংকে ভুগছে। এছাড়া বাইশারী-ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়ক দিয়ে অপহরনকারীদের আতংকে সন্ধ্যার পরপরই যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। চরম দূর্ভোগে তিন ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ।

Top