বড়াইগ্রামে ১২ মামলার আসামী কাবিল বন্দুকযুদ্ধে নিহত;অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

Encounter-Death-Baraigram.1.8.18.jpg

মো: জাহিদ আলী, নাটোর প্রতিনিধি:
নাটোরের বড়াইগ্রামে মাদক ও চোরাচালানের ১২ মামলার আসামী শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী কাবিল হোসেন (৪৫) র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার বনপাড়া পৌরশহরের মহিষভাঙ্গা এলাকায় র‌্যাব-৫ এর একটি টহল দলের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সে প্রথমে আহত হয় এবং পরে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে লোহার তৈরী একটি বিদেশী ৭.৬৫ মি.মি পিস্তল, ২ রাউন্ড তাজা গুলি ও গুলির ১টি খালি খোসা, ১ টি পিস্তলের ম্যাগাজিন এবং ২৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে র‌্যাব। নিহত কাবিল উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চরগোবিন্দপুরের মৃত শহিদুল্লাহ সেখের ছেলে।
র‌্যাব-৫ সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের সহকারী পুলিশ সুপার মো. আজমল হোসেন জানান, মাদক ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত সাড়ে ১১টার দিকে র‌্যাব-৫ এর একটি দল বনপাড়া-মৌখাড়া সড়কের মহিষভাঙ্গা এলাকায় অভিযান চালানোর সময় উপস্থিত অপ্সাত ৩/৪জনকে আতœসমর্পনের নির্দেশ দেয়। কিন্তু তারা আতœসমর্পন না করে এলোপাতারি গুলি ছোঁড়ে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করে। পক্ষান্তরে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে সহযোগী অন্যান্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও একজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরবর্তীতে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।
বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস নিহতের পরিচয় প্রকাশ করে জানান, কাবিলের বিরুদ্ধে বড়াইগ্রাম ও লালপুর থানায় মাদক ও চোরাচালান সহ ১২ টি মামলা রয়েছে। সে নাটোর জেলার অন্যতম শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত।

Top