ঠাকুরগাঁওয়ে একটি হাস্কিং মিলের নৈশ প্রহরীকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা।

IMG_20180802_153550.jpg

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :
ঠাকুরগাও জেলার রুহিয়ায় একটি হাসকিং মিলে নিধুরাম বর্মন ( ৬৫) নামে এক নৈশ প্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে । ০২ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) সকালে রুহিয়া থানা পুলিশ নিধুরাম বর্মনের উদ্ধার করে। তিনি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানার ঘনিমহেশপুর গ্রামের মৃত রামমোহনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, নিধুরাম বর্মন দীর্ঘদিন ধরে ২০নং রুহিয়া পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান অনিল কুমার সেনের রামনাথ হাটের হাসকিং মিলের নৈশ প্রহরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

প্রতিদিনের ন্যায় ০১ আগস্ট (বুধবার) দিবাগত রাতে ওই মিলে পাহারা দিতে যান এবং মিলের উত্তর পাশে একটি খোলা ঘরে শুয়ে ছিলেন তিনি। রাতের কোনো এক সময় দূর্বৃতরা নিধুরাম বর্মনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে।

ওই মিলের কর্মচারী দীপাল চন্দ্র সেন সকাল ৯ টায় মিলে এসে বৃদ্ধ নিধুরাম বর্মনকে রক্তাক্ত ও মৃত অবস্থায় দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয়রা তার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেন। পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশটি ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

রুহিয়া থানার ওসি প্রদীপ কুমার রায় জানান, এ হত্যাকাণ্ডের কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত চলছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Top