নেই লাইসেন্স, আটকে রাখা হল পুলিশের গাড়ি

received_2060323770658116.jpeg

মো: তানভীর অাহম্মেদ রনি:
রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন কলেজের দুই শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় চতুর্থ দিনের মতো রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (০১ আগস্ট) সকাল থেকেই ইউনিফর্ম গায়ে ক্লাস বর্জন করে তারা মূল সড়কগুলোতে জড়ো হতে থাকে। তারা বিভিন্ন গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করে।

রাজধানীর ফার্মগেট, বিমানবন্দর, উত্তরা, গাজীপুরের- টঙ্গী, কলেজ গেট, চৌরাস্তা এলাকায় রাস্তা বন্ধ করে বিক্ষোভ শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

এসময় বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে আসা বিভিন্ন গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করে। লাইসেন্স না থাকায় চালকদের গাড়ির চাবি নিয়ে নেন তারা। ছাত্ররা বলেন, যাদের লাইসেন্স পাওয়ার যোগ্যতা নাই, তারা গাড়ি নিয়ে রাস্তায় কেনো?

বেলা সাড়ে ২ টার দিকে বিমানবন্দর এলাকায় সামনে পুলিশের কয়েকটি গাড়িও মোটরসাইকেল শিক্ষার্থীদের লাইসেন্স পরীক্ষায় আটকে যায়।

পিঠে স্কুলব্যাগ নিয়ে পুলিশের ওই মোটরসাইকেল বসে থাকা ইউনিফর্ম পরিহিত এক শিক্ষার্থী জানায়, তারা লাইসেন্স দেখতে চেয়েছিল, কিন্তু পুলিশের গাড়ির চালক তা দেখাতে পারেনি। এ গাড়ি তারা যেতে দেবে না।

তাহলে লাইসেন্স দেখাতে পারেননি কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, “সরকারি গাড়ি, আমাদের গাড়িতে করে খাবার নেওয়া হয়। কাজের সময় আমরা লাইসেন্স নিয়ে বের হই না। কাগজ অফিসে থাকে।”

এদিকে দুপুর ৩ টার দিকে খিলক্ষেত থেকে উল্টো পথ দিয়ে বিমানবন্দরের দিকে আসা পুলিশের অন্য একটি ভ্যান ফিরিয়ে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

Top