চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে,কক্সবাজার থেকে টেকনাফে র‌্যাবের যৌথ টহল

received_1953416184950070.jpeg

ফরহাদ আমিন
চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে কক্সবাজার থেকে টেকনাফে র‌্যাবের যৌথ টহল অনুষ্টিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) নতুন ৫টিসহ সাতটি ক্যাম্প যৌথভাবে কক্সবাজার সদর, রামু, উখিয়া ও টেকনাফে টহল দিয়ে র‌্যাব আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব শুরু করেন। এর ফলে টেকনাফ র‌্যাবের নতুন পাঁচটি ক্যাম্পের যাত্রা শুরু হয়। এই সব ক্যাম্প হল, টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ, সাবরাং, টেকনাফ সদর, বাহারছড়া ও হোয়াইক্যংয়। এই যৌথ টহলে অংশ নেয় ৩০টি যান টহল।
র‌্যাব সূত্র জানায়, সকল ক্যাম্পের সমন্বয়ে র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর মেহেদি হাসানের নেতৃত্বে টেকনাফ র‌্যাব ক্যাম্পের ইনর্চাজ লে. মির্জা শাহেদ মাহতাবসহ কক্সবাজারের লিংক রোড় থেকে র‌্যাবের যৌথ টহল শুরু হয়। টহল দলটি কক্সবাজার কলাতলী মোড় হয়ে মেরিন ড্রাইভ সড়ক হয়ে উখিয়া থেকে সন্ধায় টেকনাফ উপজেলা পরিষদে এসে যৌথ টহল শেষ হয়।
র‌্যাব-৭ কক্সবাজার সিপিসি-২ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মেহেদি হাসান সংবাদিকদের জানান, র‌্যাবের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসাবে কক্সবাজার ও টেকনাফ অঞ্চলে নতুন পাঁচটি ক্যাম্প চালু করা হয়েছে। এই অঞ্চলে বর্তমানে সাতটি ক্যাম্প ধারা মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। দেশব্যাপী র‌্যাবের চলো যায় যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে শীর্ষক অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। কক্সবাজারকে মাদকমুক্ত করার লক্ষ্যে টেকনাফে র‌্যাবের নতুন পাঁচটি ক্যা¤প স্থাপন করা হয়েছে। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক টহলের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করা হয় বলে জানিয়েছেন।
সূত্র জানায়, টেকনাফের ওপারে পাশ্ববর্তী দেশ মিয়ানমার। সীমান্তে পাহারায় বিজিবি এবং নৌপথ পাহারায় কোস্টগার্ড রয়েছে। এ ছাড়াও রয়েছে পুলিশ বাহিনী। এর পরও ইয়াবা পাচার বন্ধ হচেছনা। তাই ইয়াবা পাচার বন্ধে নতুন পাঁচটি র‌্যাব ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।

Top