সাতক্ষীরার শ্যামনগরে পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত-১

IMG_20180729_001615.jpg

রুহুল কুদ্দুস, সাতক্ষীরা সদর প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার শ্যামনগরে গ্রেপ্তারের পর পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রেজাউল ইসলাম নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন।পুলিশের দাবি, রেজাউল মোটরসাইকেল চোর চক্রের হোতা। তার বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল চুরির ১২টি মামলা রয়েছে। রেজাউল (৪২) শ্যামনগরের বাদোঘাটা গ্রামের আবদুল মাজেদ দফাদারের ছেলে।

শুক্রবার মধ্যরাতে শ্যামনগরের খানপুর বাজারের নিকটে একটি ইটভাটার কাছে কালভার্টের ওপর এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।জেলা পুলিশের তথ্য কর্মকর্তা বিশেষ শাখার পরিদর্শক আজম খান জানান, মোটরসাইকেল চোর চক্রের হোতা রেজাউল ইসলামকে ঢাকার পল্লবী থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার একটি গোপন আস্তানা থেকে গ্রেপ্তার করে।

শ্যামনগর থানা পুলিশ তাকে শুক্রবার সকালে সাতক্ষীরায় নিয়ে আসে। রেজাউলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী চোরচক্রের আরও তিন সদস্য শামীম, শাহজাহান ও সাহিদুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় একটি চোরাই মোটরসাইকেলও জব্দ করা হয়।

তিনি বলেন, রাতে রেজাউলকে নিয়ে খানপুর এলাকায় তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আরও মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে গেলে সেখানে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে তারা গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হন রেজাউল। তাকে দ্রুত শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Top