দুর্ভোগের আরেক নাম বামনী ডিগ্রী কলেজ সড়ক

received_10212120470714771.jpeg

মোঃ ওয়ালিদ সাকিব, ষ্টাপ করেসপন্ডেন্ট:

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের ৩ কিলোমিটার দীর্ঘ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ওয়াদুদ সড়কে ( বামনী কলেজ রোড) বেহাল অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। খানাখন্দে পানি জমে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে সড়কটিতে নিয়মিত যাতায়াতকারী হাজারো স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও সাধারণ পথচারী।

সরেজমিনে দেখা যায়, ৩কিলোমিটার সড়কের বিভিন্নস্থানে পিচ ঢালাই, ইট, খোয়া উঠে বেরিয়ে পড়েছে মাটি। সৃষ্টি হয়েছে ছোট-বড় খানাখন্দ। সড়কের শুরুতেই বামনী কলেজ গেইটের সামনে প্রায় ৫০০মিটার সড়কে অল্প বৃষ্টি হলেই সড়কটিতে হাঁটু পানি জমে থাকায় চরম দূর্ভোগে পড়তে হয় সড়কে চলাচলকারী ছাত্র-ছাত্রী, যানবাহন ও পথচারীদের। বৃষ্টির পর খানাখন্দে পানি জমে থাকায় এখন হেঁটে চলাচল করা দুষ্কর হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,এ সড়ক দিয়ে বামনী ডিগ্রী কলেজ, বামনী উচ্চ বিদ্যালয়, দক্ষিণে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রী সহ স্থানীয় আশপাশের গ্রামের হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে সড়কটি। কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে জনগণের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। পুরো সড়ক জুড়ে তৈরী হয়েছে অসংখ্য গর্ত।

বামনী ডিগ্রী কলেজের এক প্রভাষক জানান, দীর্ঘ এক বছর যাবত সড়কের এ বেহাল অবস্থা। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার শিক্ষার্থী স্কুল-কলেজে আসে। এ সড়কের বর্তমান যে অবস্থা তাতে হাজার হাজার মানুষকে অন্তহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বামনী ডিগ্রী কলেজের এক শিক্ষার্থী জানান, সড়কের খানাখন্দে ময়লা পানি জমে থাকে। প্রতিদিন আসা যাওয়া করতে ময়লা কাদা পানিতে পা ছুঁয়ে যায়। তবুও কলেজে আসতে হয় আমাদের। সড়কটি অবিলম্বে সংস্কারের দাবি জানায় সে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ ইব্রাহীম খলিল জানান,২০১৪ সালে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রাজু এন্টার প্রাইজ ৭৭ লাখ টাকা ব্যয়ে সড়কটির কাজ সম্পন্ন করে। সহসা সড়কটির সংস্কারের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

Top