পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর সরিষাবাড়ীতে যৌন হয়রানী ঘটনায় থানায় মামলা

download-3-6.jpg

মাসুদুর রহমানঃ
গত ২৫ জুলাই দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর প ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানী ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নং-২৪,তাং-২৫-০৭-২০১৮ ইং ।
সরোজমিনে ঘুড়ে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ভাটারা পূর্ব পাড়া গ্রামের জামিনুর ইসলামের ৫ম শ্রেনীতে পডুয়া কণ্যা(১২)পাশের বাড়ীর খলিলের ঘরের বারান্দাতে গত ২৪ জুলাই শনিবার দুপুরে খালাত বোনের সাথে খেলতে ছিল। এমন সময় একই গ্রামের পাশের বাড়ীর মৃত আবেছ আলীর ছেলে ৩ সন্তানের জনক দুলাল মিয়া(৬০)ওই শিক্ষার্থীকে জডিয়ে ধরে কোলে তুলে নেয়। এ সময় শিক্ষার্থী চিৎকার দিলে গালে কামড় দিয়ে তাকে ছেড়ে চলে যায় দুলাল মিয়া।এ নিয়ে শিক্ষার্থীর নানী রাবেয়া বেগম যৌন হয়রানী কারী দুলাল মিয়ার বাড়ীতে গিয়ে গালিগালাজ ও মারধর করে। পরে শিক্ষার্থীর পরিবারের লোকজন ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বাদল এর নিকট বিচার প্রার্থী হলে তিনি সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ খবর দেন।পুলিশ তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার তদন্ত করেন।এ নিয়ে এলাকায় দফায় দফায় দরবার আহব্বানের শেষ পর্যায়ে গত সোমবার রাতে লাখ টাকায় সমঝোতা হলেও এলাকার লোকজনের মাঝে জানাজানি ও দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকা এবং বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে পুলিশের তৎপরতায় শিক্ষার্থীর নানী বিলকিছ বেগম বাদী হয়ে দুলাল মিয়াকে আসামী করে থানায় মামলাটি দায়ের করেন। ওই শিক্ষার্থীকে নারী ও শিশু আইনের ২২ ধারায় গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতে জবানবন্দী রেকর্ড করা হয়েছে বলে পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।
সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান বলেন,শিক্ষাথীকে যৌন হয়রানী করার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Top