২ বেসরকারী হাসপাতালকে ১৪ লাখ জরিমানা: ভর্তি নিচ্ছেনা নতুন রোগী : চমেকে বাড়ছে রোগীর চাপ:

received_350836768779824.jpeg

জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ

ম্যাক্স হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযানের প্রতিবাদে নগরের বেসরকারি হাসপাতাল ক্লিনিক অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণায় নতুন রোগী ভর্তি নিচ্ছেনা তাঁরা।

মূলত এখন পুর্বে ভর্তি থাকা রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছে বলে জানা যায়।

ফলে দুর দুরান্ত থেকে আসা রোগীরা বেসরকারি নানা হাসপাতালে ভর্তি হতে না পেরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হাজির হচ্ছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, চমেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগের প্রচুর রোগীদের উপস্থিতি। হিমশিম খাচ্ছে সেবা প্রদানে দায়িত্বরত ডাক্তারেরা।

আজ রোববার (৮ জুলাই) জিইসি মোড়স্থ বিএমএ কার্যালয়ে ম্যাক্স হাসপাতালের পরিচালক ডা. লিয়াকত আলী অনিদির্ষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ ঘোষনা সহ নতুন রোগী ভর্তি না করানোর এ ঘোষণা দেন।

বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি মুজিবুল হক চৌধুরী বলেন,বেসরকারি হাসপাতাল ক্লিনিক গুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেখানে বিএমএও সমর্থন জানিয়েছে।

ম্যাক্স হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযানের প্রতিবাদে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

তবে হাসপাতাল গুলোতে ভর্তি থাকা রোগীরা এই ঘোষণার আওতায় পড়বেন না বলেও জানান তিনি।

এদিকে বেসরকারি হাসপাতাল মালিকদের এই ঘোষণার সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি মুজিবুল হক খান।

বিকাল ৩টা পর্যন্ত চলা এই অভিযানে ত্রুটিপূর্ণ লাইসেন্সে অদক্ষ-অনভিজ্ঞ ডাক্তার-নার্স দ্বারা পরিচালনার অভিযোগে ম্যাক্স হাসপাতালকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম।

পরে সন্ধ্যা ৬টায় নানা অনিয়মের অভিযোগে নগরীর সিএসসিআর হাসপাতালকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ একই আদালত।

Top