দেবীগঞ্জে বিষ পানে শিশু সন্তান সহ মায়ের আত্মহত্যা

IMG_20180621_153905.jpg

এম. এ নাঈম,পঞ্চগড় প্রতিনিধি:
পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার চেংঠী হাজরাডাঙ্গা ইউনিয়নে দুই সন্তানসহ মায়ের বিষপানের ঘটনায় শিশু সন্তান সহ মায়ের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আরেক সন্তানকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
বুধবার রাতে ইউনিয়নের ফুলবাড়ি শেওরাতলী এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন, শেওরাতলী এলাকার জয়দেব রায়ের স্ত্রী মমতা রানী (৩৫) ও তার দেড় বছরের ছেলে রাতুল রায়। এ ছাড়া তার মেয়ে সেতু রাণীর (৬) অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

চেংঠি হাজরাডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অনিল চন্দ্র রায় জানান, ফুলবাড়ি শেওরাতলী এলাকার জয়দেব ১০ কিলোমিটার দূরের গড়েয়া বাজারের একটি মুদি দোকানে কর্মচারী হিসেবে কাজ করেন। বুধবার সকালে ভাত রান্না নিয়ে জয়দেব ও তার স্ত্রী মমতা রানীর মধ্যে ঝগড়া হয়। দুপুরে আরেক দফা ঝগড়া হয় স্বামী স্ত্রীর মাঝে। পারিবারিক কলহের জেরে সন্ধ্যায় মমতা রানী তার ছয় বছরের মেয়ে সেতু রানী ও দেড় বছরের ছেলে রাতুল রায়কে আমের রসের সাথে বিষ পান করিয়ে নিজেও বিষ পান করেন। বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নেওয়ার পথে মমতার মৃত্যু হয়। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুই সন্তানকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাতুলের মৃত্যু হয়।
আশঙ্কাজনক অবস্থায় সেতু রানীকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Top