বেনাপোল বড় আঁচড়ায় অন্তঃসত্তা গৃহবধুকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

20180616_100003.jpg

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি :
বন্দরনগরী বেনাপোলে সারমিন আক্তার সীমা(২৪) নামে অন্তসত্তা এক গৃহবধুকে স্বামী কর্তৃক শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা সকলেই বাড়ি ছেড়ে পালাতক রয়েছে।
শনিবার(১৬জুন) সকালে পুলিশ ওই গৃহবধুর স্বামীর বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে।
সারমিন বেনাপোল পৌরসভার বড়আঁচড়া টার্মিনাল পাড়ার নাজমুলের স্ত্রী।
নিহতের পিতা সিঅ্যান্ডএফ ব্যবসায়ী বেনাপোলের বড়আঁচড়া গ্রামের শফিকুল ইসলাম জানান, ঈদের দিন সকালে জামাইয়ের পরিবারের লোকজনদের সবাইকে বাড়ি থেকে বের হতে দেখে সন্দেহ হয় প্রতিবেশিদের। পরে তারা ঘরে গিয়ে তার মেয়ের মৃতদেহ বিছানায় পড়ে থাকতে দেখে তাদের খবর দেয়। তার শরীরে মারধোরের চিহ্ন রয়েছে।
এসময় তিনি আরো জানান, তার মেয়েকে জামাইসহ শশুর বাড়ির লোকজন শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়েছে। এর আগে প্রায়ই তার জামাই মেয়েকে মারধর করতো। গত মাসে অন্য একটি মেয়েকে নিয়ে তার জামাই এক মাস ঢাকায় অবস্থান করে। এতে সংসারে অশান্তি চলছিল।
বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক(এসআই) মনির হোসেন জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্বামীসহ শশুর বাড়ির লোকজন সবাই পালাতক রয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে বলে জানান তিনি।

Top