বাড্ডায় অাওয়ামী লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

farhad-ali-20180615154921.jpg

নিউজ ডেস্ক:
রাজধানীর বাড্ডায় মসজিদ থেকে জুম্মার নামাজ পড়ে বের হওয়ার পর সন্ত্রাসীদের গুলিতে ফরহাদ অালী (৫৫) নামে অাওয়ামী লীগ নেতা নিহত হয়েছেন। নিহত ফরহাদ অালী বাড্ডা ইউনিয়ন অাওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। অাজ শুক্রবার দুপুরে বাড্ডার অালীর মোড়ে একটি মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

বাড্ডা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নজরুল ইসলাম বলেন, সন্ত্রাসীদের দুইটি গুলি তার শরীরে লাগে। ঘটনাস্থলে তিনি নিহত হন।

পুলিশ জানায়, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

নবগঠিত ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ফারুক আহমেদ ও নিহত ফরহাদ আলী প্রার্থী ছিলেন। গত ২১ এপ্রিল বেরাইদ ইউনিয়নে প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের ছোট ভাই কামরুজ্জামান দুখু নিহত হন। ওই ঘটনায় জাহাঙ্গীর চেয়ারম্যান বাদী হয়ে ফারুক আহমেদসহ ২৭ জনের নাম উল্লেখ করে বাড্ডা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদালতে ফারুক আহমেদসহ ২১ জন হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। আদালত ফারুক আহমেদসহ চারজনকে গ্রেফতারের আদেশ দেয়।

বৃহস্পতিবার ফারুক আহমেদ ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান। পুলিশ ধারণা করছে, ফারুক আহমেদ ওই ফরহাদ আলীর হত্যার সঙ্গে জড়িত।

উল্লেখ্য, ফারুক আহমেদ স্থানীয় সংসদ সদস্য রহমত উল্লার ভাগ্নে। তিনি ওই এলাকায় ভাগ্নে ফারুক নামে পরিচিত।

Top