জগন্নাথপুরে রাস্তার কাজ শেষ হওয়ার তিন দিনে ৬টি ভাঙ্গন: জনমনে ক্ষোভের শেষ নেই!!

35285779_1980041995352961_2480006106319945728_n.jpg

জুয়েল আহমদ,জগন্নাথপুর থেকে::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জ ইউনিয়নবাসীর বহুল প্রত্যাশিত রানীগঞ্জ-শিবগঞ্জ সড়কের প্রায় ২১০০ মিটার পাকা সড়ক নির্মাণের তিন দিন পর ব্যাপক ভাঙ্গনে জনমনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। যে কোন সময় বড় দূর্ঘটনা আংশকা করছেন স্থানীয়রা।
জগন্নাথপুর এলজিআইডি অফিস সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) অধীনে ‘গুরুত্বপূর্ণ গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় রানীগঞ্জের ইসলামপুর হতে আছিমপুর পর্যন্ত ২১০০ মিটার সড়ক প্রায় ১ কোটি ১০ লাখ টাকার কাজ পায় সুনামগঞ্জের ঠিকাদার মাহবুব আলম।গতকাল বুধবার সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, রানীগঞ্জ-শিবগঞ্জ সড়কে নি¤œমানের কাজের জন্য অল্প বৃষ্টিতে ভেঙ্গে যাচ্ছে। এমনকি গর্ত আকার ধারন করে সড়কটিতে যানবাহন চলাচল করার অনুপযোগী হয়ে পড়বে।গত তিন দিন আগে সড়কের কাজ শেষ হয়েছে। কাজ শেষ হতে না হতেই রাস্তা ভাঙ্গা জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
এব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দরা জানান,দায়িত্ব থাকা মানুষদের ম্যানেজ করে নি¤œ মানের কাজ চালিয়ে গেছেন ঠিকাদার। তারা আরো জানান,বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার এসব ঠিকাদারের জন্য আজ আমরা পিছিয়ে গেছি।সরকারের আমলে রাস্তা-ঘাট,পুল,কালভার্ট তৈরি করে এবং পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ সমবায়ের মাধ্যমে দেশের মানুষের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।আমরা চাই বর্তমান সড়কটি সংস্কার করে সরকারের মান সম্মান রাখবেন।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,রাস্তার কাজ তো দুই-তিন আগেই শেষ হল।বর্তমান অবস্থায় সরেজমিনে গিয়ে দেখি নাই। স্থানীয় মেম্বারকে পাঠিয়ে রাস্তার খোঁজ খবর নিয়ে দেখছি।
এব্যাপারে জগন্নাথপুরে উপজেলা এলজিইডির ইি নিয়ার মো.গোলাম সারোয়ারের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,রাস্তা ভাঙ্গার বিষয়টি খোঁজ খবর নিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিচ্ছি।##

Top