চট্টগ্রামে পুলিশের নতুন কমিশনারের যোগদান:

IMG_20180612_192551.jpg

জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি)নতুন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে এসেছেন ডিআইজি পদমর্যাদার মো. মাহাবুবুর রহমান।

মঙ্গলবার(১২ জুন)বেলা ১২টার দিকে নগরীর লালদিঘীর পাড়ে সিএমপি কার্যালয়ে আসেন মাহাবুবুর রহমান।

নতুন কমিশনারকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান সিএমপির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এসময় সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার কুসুম দেওয়ান, মাসুদ-উল-হাসান এবং আমেনা বেগমসহ কর্মকর্তাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন কমিশনার।

এর আগে তিনি গার্ড অব অনার গ্রহণ করেন।

মাহাবুবুর রহমান জানান, চট্টগ্রাম নগরীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করে সার্বিক বিষয়ে খোঁজখবর নিয়েই তিনি সিএমপিতে এসেছেন।

তিনি আরো বলেন, দেশে যে মাদকবিরোধী সর্বাত্মক অভিযান চলছে সেটা জোরালো করা, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখা এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা-এই তিনটাই আমার টার্গেট।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিষয়ে বলেন, ‘এটা আমি যতটুকু জানতে পেরেছি, ভোরবেলার দিকে একটু বেশি ছিনতাই হয়। আমি ছিনতাইকারীদের তালিকা নিয়ে বসব। সার্বিক বিষয়টা বিশ্লেষণ করে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের দিকনির্দেশনা দেব। আশা করি ছিনতাই রোধ করা কষ্টসাধ্য হবে না।’

অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যাবার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটা শুধু চট্টগ্রাম নয়, সারাদেশের সমস্যা। তবে পেশাদার অপরাধী যারা আছে তাদের মামলাগুলোর খোঁজখবর নেব। কারা জেলে আছে, কারা বাইরে আছে সেটার বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা নিয়েই তারপর কাজ শুরু করব।

যেসব মামলা তদন্তের পর্যায়ে আছে সেগুলোর যাতে দ্রুত তদন্ত শেষ করা হয়, সেই ব্যাপারে আমার স্পষ্ট অবস্থান থাকবে।’

নির্বাচনের বছরে সিএমপি কমিশনারের দায়িত্বকে চ্যালেঞ্জ মনে করছেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব আইন এবং বিধি মোতাবেক আমি সঠিকভাবেই পালন করব।’

মাহাবুবুর রহমান এর আগে পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

গত ২৭ মে মাহাবুবুর রহমানকে সিএমপিতে বদলির আদেশ দেয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বিদায়ী কমিশনার ইকবাল বাহারকেগত ২৬ এপ্রিল বদলির আদেশ দিয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

Top