দোয়ারাবাজারে সুরমা ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হতে হয়রানী মূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন।

received_1556226037839442.jpeg

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ
দোয়ারাবাজারে খাসিয়মারা নদী হতে বালি উত্তোলন ও সুরমা ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হতে হয়রনাী মূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন চেয়ারম্যানের পরিবার।

আজ রবিবার দুপুরে সুরমা ইউনিয়ন পরিষদ অস্থায়ী কার্যালয়ে এলাকাবাসীর পক্ষে আব্দুল মজিদ বীরপ্রতিকের সভাপতিত্বে এক জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইউপি চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ও জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কেএম তানভীর রশিদ ইমন।

লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের স্থানীয় খাসিয়ামারা নদী হতে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন করায় পরিবেশের ক্ষতিসহ নদীর উভয় তীরে ভাঙন তীব্র আকার ধারণ করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে সুরমা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খন্দকার মামুনুর রশীদ ইজারাদারদের বালু উত্তোলনে বাধা দিলে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মিথ্যা ও হয়রানী মূলক মামলা দায়ের করে।

বালু পরিবহনের নৌকায় বাধা দেওয়ার পর ওই দিন রাতেই এমপি মুহিবুর রহমান মানিকের ইশারায় তদন্ত ছাড়াই রাতারাতি মামলাটি রেকর্ডভুক্ত করা হয়।

আমরা এলাকাবাসীর বক্তব্য হচ্ছে, চেয়ারম্যান জন গণের স্বার্থ রক্ষায় খাসিয়মারা নদী হতে বালু উত্তোলনের ফলে নদীর উভয় তীর ভাঙ্গনের কবলে পড়ে। সম্প্রতি ক্ষতিগ্রস্ত জনগণের লিখিত আবেদনের প্রেক্ষিতে তিনি অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনে বাধা দেওয়ায় রাজনৈতিকভাবে তিনি চক্রান্তের শিকার হন।

আমরা অবলিম্বে অপরিকল্পিতভাবে খাসিয়ামারা নদী হতে বালু উত্তোলন বন্দ সহ সুরমা ইউপি চেয়ারম্যানের উপর দায়ের কৃত মিথ্যা ও হয়রানী মূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কৃষক নেতা আব্দুল আওয়াল, ইউপি সদস্য শাহ আলম, খন্দকার মিজানুর রহমান, শহিদুল্লাহ, মিজানুর রহমান, আবুল কাশেম, ছাত্রলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম, কলিম উদ্দিন, রুবেল আহমদ, ইউনুছ আহমদ, শফিকুল ইসলাম, তোফাজ্জল হোসেন, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় জেলা উপজেলা পর্যায়ের গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Top