অভিযানের মাঝেও থেমে নেই ইয়াবা পাচার:টেকনাফে ২০হাজার ইয়াবা উদ্ধার:নৌকা জব্দ

20000.jpg

ফরহাদ আমিন:
টেকনাফের হ্নীলা ওয়াব্রাং এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিজিবি ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যবলেট উদ্ধার করেছে বলে জানা গেছে। তবে এ অভিযানে ইয়াবা চোরাকারবারীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।
টেকনাফ-২বর্ডার গার্ড ব্যাটলিয়ান বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী জানান, ৫ জুন ভোররাতে ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ হ্নীলা বিওপির নায়েক মোঃ ছাবির উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি টহল দল ওয়াব্রাং এলাকায় বিশেষ টহলে গমন করে। পরবর্তীতে বিশ্বস্ত গোয়েন্দা গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে,ওয়াব্রাং বরাবর নাফ নদী দিয়ে ইয়াবার একটি চালান মায়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। উক্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টহলদল দ্রুত বর্ণিত এলাকায় গমন করতঃ ওয়াবরাং বেঁড়ীবাধের এক পার্শ্বে অবস্থান নেয়।পরে রাত পৌণে ১টার দিকে মায়ানমার হতে একটি নৌকা বাংলাদেশের দিকে আসতে দেখে টহল দল অপেক্ষারত থাকে। কিছুক্ষণ পর নৌকাটি ওয়াবরাং বরাবর নাফ নদীর কিনারায় আসা মাত্রই ৩ জন ব্যক্তি একটি ব্যাগ হাতে নৌকা থেকে নামার প্রাক্কালে টহল দল তাদের চ্যালেঞ্জ করে। আকস্মিক বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই ইয়াবা চোরাকারবারীরা ব্যাগটি ফেলে দ্রুত দৌড়ে পার্শ্ববর্তী গ্রামে পালিয়ে যায়।টহল দল উক্ত নৌকাটি জব্দ করে। পরে ইয়াবা পাচারকারী ফেলে যাওয়া ব্যাগটি খুলে গণনা করে ৬০ লাখ টাকা মূল্যমানের ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে। এছাড়াও আটককৃত নৌকাটি সংশ্লিষ্ট কাষ্টম অফিসে জমা করা হয়েছে’।

Top