লামায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত

IMG_20180605_181114.jpg

আরিফুল ইসলাম,লামা(বান্দরবান)প্রতিনিধি:
“আসুন প্লাস্টিক দূষণ বন্ধ করি,প্লাস্টিক পুন:ব্যবহার করি;না পারলে বর্জন করি” প্রতিপাদ্য সামনে রেখে লামায় পালিত হয়েছে বিশ্ব পরিবেশ দিবস। উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগের যৌথ আয়োজনে ও স্যাপলিং এবং কারিতাস এগ্রো ইকোলজি প্রকল্প সিএইচটি এর সহযোগিতায় দিবসটি মঙ্গলবার (৫ জুন) পালন করা হয়।
জনসাধারণের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সকাল ১০টায় এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী লামা উপজেলা পরিষদ সামনে হতে শুরু হয়ে লামা বাজার প্রদক্ষিণ শেষে টাউন হল আলোচনা সভা স্থলে গিয়ে শেষ হয়।
র‌্যালী ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, লামা বন বিভাগের সদর স্টেশন কর্মকর্তা মো. জলিলুর রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুর-এ জান্নাত রুমি। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সায়েদ ইকবাল, লামা থানা অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রাশেদ পারভেজ, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া, বিএডিসি এর উপ-পরিচালক মাহফুজুর রহমান, কারিতাস খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পের ফিল্ড অফিসার মামুন সিকদার, স্যাপলিং প্রকল্পে উপজেলা সমন্বয়কারী ইয়াহিয়া আহমদ সহ প্রমূখ। এছাড়া বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, এনজিও কর্মী, এনজিও সুবিধাভোগী জনগণ, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের লোকজন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।
সভায় বক্তারা বলেন, প্লাস্টিকের ব্যবহার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিদিন যে বর্জ্য তৈরি হয়, তার প্রায় ১০ ভাগ প্লাস্টিক। প্রতি বছর বিশ্বব্যাপী ৫০০ বিলিয়ন প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যবহার হচ্ছে। যার মধ্যে প্রায় আট মিলিয়ন টন প্লাস্টিক সমুদ্রে পতিত হয়। এর ফলে এক মিলিয়ন সমুদ্রচারী পাখি ও এক লাখ সামুদ্রিক স্তন্যপায়ী প্রাণীর মৃত্যু হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুর-এ জান্নাত রুমি বলেন, মানুষের জীবন-জীবিকা নির্বাহে প্রকৃতি ও পরিবেশের গুরুত্ব অপরিসীম। জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও মানুষের অপরিণামদর্শী কর্মকান্ডের কারণে প্রকৃতি ও পরিবেশে প্রতিনিয়ত দূষিত বর্জ্য যুক্ত হচ্ছে। বিঘœত হচ্ছে প্রাকৃতিক ভারসাম্য। তিনি পলিথিনের বিকল্প পাটের শপিং ব্যাগ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে সকলকে অনুরোধ করেন। এছাড়া নদী, খাল খনন সহ পাড়ে বৃক্ষরোপণ করতে বলেন।

Top