নিখোঁজের ৪ দিনের মাথায় যুবকের মাথা বিহীন লাশ উদ্ধার।

IMG_20180604_015003.jpg

রিপন মিয়া,শেরপুর প্রতিনিধি।
নবীগঞ্জে নিখোঁজের ৪ দিন পর কাউছার মিয়া (১৭) নামে এক যুবকের মাথা বিহীন লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত শনিবার বিকেল ৫টার দিকে পানিউমদা ইউনিয়নের পানিউমদা (দেওলাবাড়ি) এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করে গোপলার বাজার ফাঁড়ি পুলিশ। কাউছার মিয়া ওই গ্রামের হায়দর মিয়ার পুত্র।
স্থানীয় সূত্র জানায়,নবীগঞ্জ উপজেলার পাহাড়ি অঞ্চল হিসেবে খ্যাত দিনারপুর পরগনার পানিউমদা ইউনিয়নের পানিউমদা গ্রামের পাহাড়ে বসবাস করেন হায়দর মিয়া ও তার পরিবার। গত মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে ওই গ্রামের একটি চায়ের দোকান থেকে দুরুদ মিয়া নামের এক যুবকের সাথে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় কাউছার মিয়া। এরপর থেকে আর কাউছার মিয়ার কোন খোঁজখবর মিলেনি। নিকটাত্মীয়-দূরসম্পর্কের আত্মীয়দের বাড়িসহ সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান না পেয়ে নিরুপায় হয়ে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে তার পিতা হায়দর মিয়া নবীগঞ্জ থানায় জিডি করেন। এদিকে, বিকেল ৫টার দিকে এক লোক দেওলাবাড়ি নামকস্থানে মাথাবিহীন ও ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন গিয়ে পুলিশকে খবর দেন।
নবীগঞ্জ-বাহুবল সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পারভেজ আলম চৌধুরী জানান, গত ২৯ মে কাউছার মিয়া নিখোঁজ হলে ৩১ মে তার পিতা নবীগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন। এক পর্যায়ে শনিবার সন্ধ্যায় কাউছারের মাথাবিহীন মৃতদেহটি উল্লেখিত স্থানে পড়ে থাকতে দেখলে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। এ রিপোর্ট লোখা পর্যন্ত মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে আটক করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Top