জৈন্তাপুরে অসনীয় লোডসেডিং ভোগান্তিতে রোজাদার মুসল্লিরা

-400x240.jpg

এম,এম,রুহেল জৈন্তাপুর।
সিলেট এর জৈন্তাপুর উপজেলার অন্তর্গত সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ-২ এর লোড সেডিং ও বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ট জনজীবন। ইফতার,সেহরি, তারাবির নামাজে,পড়তে হচ্ছে ভ্যাপসা গরমে। প্রতিদিন তাদের সার্ভিস এমন হয়েছে যে ৩০ মিনিট টানা সাভির্স দিতে তারা ব্যার্থ।তাই লোড সেডিং করতে হয় ঘন্টায় দুবার।এ ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিশ্চুক গ্রাহক জানান প্রতিদিন নামাজ,সেহরী,ইফতার, এর সময় বিদ্যুৎ নেয়া একটি নিয়ম হয়ে গেছে তাদের।আমাদের পিট ওয়ালে টেকে গেছে এর থেকে আমরা উত্তরন চাই।বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাএ ছাএীদের লেখা পড়া ও কলকারখানার বিপনী বিতানে এর প্রভাব পড়ে ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছে।সরাদিন কর্ম ক্লান্ত শ্রমিক গরমে মাথা গোজাতে পারছে না ব্যপস্যা গরমে শিশু বৃদ্ধা রোগিদের ভিশন কষ্টে দিন কাটছে।
গত কাল রাতে সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ-২ এর লোড সেডিং এর বিরুদ্ধে সিলেট তামাবিল সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে গ্রহক গন।
এ ব্যাপার সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ- ২ এর টেকনিক ডিজিএম বিনয় ভুষন এর সাথে মুটোফোন আলাপ কালে তিনি জানান আমাদের বিদ্যুৎ এর চাহিদা ৩২ মেগা ওয়াট আছে ২৮ তাই এর গাটতি মেটাতে গিয়ে লোডসেডিং দিতে হয়।

তিনি আরো জানানা বিয়ানিবাজারের চারখাইয়ে একটি ফিডার চালুর হওয়ার অপেক্ষায় আমরা আছি। এটি চালু হলে আমাদের পল্লী বিদ্যুৎ -২ আর কোন সিসটেম লছ থাকবেনা।

Top