আনোয়ারায় বিরোধীয় জমি জবর দখলের অভিযোগ

33992772_1959824694041358_5603803719838728192_n.jpg

ডি এইচ মনসুর,অানোয়ারা :
আনোয়ারা উপজেলার মোহছেন আউলিয়া সড়কের পাশে চাঁপাতলী মৌজায় একটি বিরোধীয় জমি জবরদখল করে সেখানে কাটা তারের বেড়া দিয়ে সাইনবোর্ড টানানোর অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ মে) সরেজমিন দেখা যায়, জনৈক আবদুল মোতালেবের ১৫.১৭ শতক আবাদি জমির চারপাশে কাটা তারের বেড়া দিয়ে দখলে নিয়েছে। সেখানে মৌরশী সূত্রে জমির মালিক সোনা মিয়া গং উল্লেখ করে সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। অভিযোগকারী মো. শাহজাহান জানান,গত ৭ মে স্থানীয় নুরুচ্ছাফা নামের এক প্রভাবশালী তার ভাড়াটে লোকজন নিয়ে জায়গাটি দখল করে চারপাশে তারের বেড়া ও সাইনবোর্ড স্থাপন করেছে।

এ ব্যাপারে আনোয়ারা সহকারী জজ আদালতে দেওয়ানী মামলা করা হয়। সেই মামলা আমলে নিয়ে আদালত গত ২২ মে উভয়পক্ষকে বিরোধীয় ওই জমিতে মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দিয়ে ১৫১ ধারা জারি করে এবং আনোয়ারা থানাকে সে আদেশ তামিল করতে বলা হয়।

জানা যায়, জনৈক আবদুল মোতালেব বয়োবৃদ্ধ হওয়াতে চলাফেরায় অক্ষম হয়ে পড়েন। যার কারণে তার দৈহিত্র মো. শাহজাহানকে গত বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি ও ১৬ নভেম্বর দলিলমূলে আমমোক্তার নিযুক্ত করেন। এরপর খাজনা আদায়ে তহশীল অফিসে গেলে মোতালেব তার বোন থেকে ক্রয়কৃত প্রায় ৬ শতক জমি তার নামে রেজিষ্ট্রি হলেও ভুলবশত বিএস রেকর্ডে জরীপ হয়নি বলে জানতে পারেন তারা। এ কারণে গত বছরের ২২ নভেম্বর আমমোক্তারমূলে মো.শাহজাহান বাদী হয়ে এসব জমির বিএস জরীপ সংশোধনের জন্য আনোয়ারা সহকারী জজ আদালতে মামলা করেন। আদালত তা আমলে নিয়ে নিস্পত্তির জন্য পূর্ববর্তী নামীয় ওয়ারিশদের নোটিশ জারি করেন।

নোটিশ পেয়ে জনৈক নুরুচ্ছাফা মৌরশী সম্পত্তি দাবী করে লোকজন নিয়ে বৃদ্ধ মোতালেবের ১৫.১৭ শতক জমি দখলে নিয়েছেন। এ বিষয়ে জানতে দখলকারী নুরুচ্ছাফার মুঠোফোনে বারবার কল করেও পাওয়া যায়নি। আনোয়ারা থানার এসআই নুরুল করিম জানান, আদালতের ১৫১ ধারার আদেশের একটি কপি পেয়েছি।

Top