মহেশখালীতে বন্দুক যুদ্ধে ইয়াবা ব্যাবসায়ী নিহত।

FB_IMG_1527181203751.jpg

মহেশখালী প্রতিনিধিঃ
মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালীর দেবাঙ্গপাড়ার পাহাড়তলীতে ২ ইয়াবা ব্যবসায়ী ও অস্ত্র ব্যবসায়ীর মাঝে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।
সংবাদ পেয়ে মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশের নেতৃত্বে পুলিশ দল ঘটনাস্থলে পৌঁছলে পুলিশকে লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীরা গুলি ছুড়তে থাকে ।
পুলিশ পাল্টা গুলি ছুড়লে ২সন্ত্রাসী বাহিনী পাহাড়ের গহীনে অবস্থান নেই।
এসময় পাহাড়ের ছুড়ায় গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তির লাশ পাওয়া যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ দ্রুত মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে অাসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার কালে ঘটনাস্থল থেকে ১হাজার পিচ ইয়াবা,৪টি বন্দুক,৩০রাউন্ড খালি বন্দুকেরখোসা,৭ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করে।
জানা যায় ,নিহত ব্যাক্তির নাম মোস্তাক অাহাম্মদ(৩২),তিনি মাঝের ডেইল গ্রামের অানোয়ারের পুত্র।তার বিরুদ্ধে মহেশখালী থানায় অস্ত্র তৈরী, ইয়াবা ব্যবসা সংক্রান্ত মামলা রয়েছে বলে থানা সুত্রে প্রকাশ।
স্থানীয় লোকজনের মতে,মোস্তাক বিভিন্ন মামলায় অাসামী হওয়ার সুবাদে পাহাড়তলীর টুনি কাটা,হরিনের ঝিরি সহ পাহাড়ের গহীন অরণ্যে নিয়মিত বন্দুক তৈরী করে বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় এর পাশাপাশি তালিকা ভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী ছিল।২৪ মে রাত ৯টার দিকে বড় মহেশখালী দেবাঙ্গপাড়ার উত্তরে পাহাড়ে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা শুরু হয়।
স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, বড় মহেশখালী দেবাঙ্গপাড়ায় ২ বিবাদমান গ্রুপের মধ্যে অস্ত্র ব্যবসা,বাংলামদ তৈরী,ইয়াবা বিক্রয়,পাহাড়ী জমি দখল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে অাসছিল। মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ জানান,দেবাঙ্গপাড়া পাহাড়ে গুলাগুলির ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাত ১০টায় পুলিশ নিয়ে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণে অভিযান পরিচালনা কালে ১ব্যক্তির লাশ পাওয়া যায়। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসার মামলা রয়েছে।

Top