ভারতে ‘বাংলাদেশ ভবন’ উদ্বোধন

IMG_20180525_153503.jpg

অনলাইন ডেস্ক।

উদ্বোধন করা হয়েছে ভারতের বুকে এক টুকরো বাংলাদেশ খ্যাত ‘বাংলাদেশ ভবন’। স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১২টার পর পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতনে বাংলাদেশের অর্থায়নে নবনির্মিত এই ভবন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুদেশের মধ্যকার অমীমাংসিত বিষয়গুলো বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে সমাধানের আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এর আগে, শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে নরেন্দ্র মোদী ও মমতার সঙ্গে অংশ নেন শেখ হাসিনাও। সমাবর্তনের আনুষ্ঠানিকতায় মোদি বলেন, বাংলাদেশ ভারত আলাদা দুটি দেশ হলেও সংস্কৃতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অটুট বন্ধন রয়েছে।

শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১২টা। কড়া নিরাপত্তায় ঘেরা কবিগুরুর স্মৃতি বিজড়িত পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতন।

অবশেষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পাশে নিয়ে ধীর পায়ে হেঁটে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধন করেন বহুল প্রতীক্ষিত বাংলাদেশ ভবন। কেননা, দু’দেশের মৈত্রীর সম্পর্কের অন্যতম স্মারক খ্যাত এই ভবন ভারতের বুকে এক টুকরো বাংলাদেশ।

এরপর নবনির্মিত ভবনের সুসজ্জিত অডিটোরিয়ামে বাংলাদশ ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন দুই শীর্ষ নেতাসহ অতিথিরা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশে আপনারা দেখবেন এই ছিটমহল নিয়ে যুদ্ধ লেগে আছে। কিন্তু ভারত এবং বাংলাদেশ একটি সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে ভাতৃত্ববোধ নিয়ে আনন্দঘন পরিবেশে আমরা ছিটমহল বিনিময় করেছি। আমি আবেগে এতে আপ্লুত হয়েছিলাম যে চোখের পানি ধরে রাখতে পারিনি। মনে হলো ৭১ সালে যেভাবে আমরা ভারতের কাছ থেকে সহযোগিতা পেয়েছিলাম, আরও একবার দেখলাম ঠিকই আমাদের প্রতিবেশী বড় বন্ধু হয়ে তারা পাশে দাঁড়ালেন।’
এনভি/ডেস্ক/ তামিম

Top