টেকনাফে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে সাড়ে ৬৮হাজার ইয়াবা উদ্ধার

1526895039194_viber-image.jpg

ফরহাদ আমিন:
টেকনাফে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৬৮ হাজার ৪পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি।বিজিবি সূত্রে জানা যায়, ২১ মে সোমবার ভোরে ২বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ান অধীনস্থ হ্নীলা বিওপির নায়েক মোঃ ছাবির উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহলদল আনোয়ার প্রজেক্ট নাফনদী সংলগ্ন মিয়ানমার হতে একটি ইয়াবার চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে।গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কেওড়া বাগানে এক পার্শ্বে টহলদল অবস্থান নেয়।পরে ৪জন লোককে একটি বস্তা নিয়ে আসতে দেখে টহলদল তাদের চ্যালেঞ্জ করে।পাচারকারীদের পিছনে ধাওয়া করলে তাদের সাথে থাকা বস্তাটি ফেলে দিয়ে দ্রুত দৌড়েঁ পার্শ্ববর্তী গ্রামে পালিয়ে যায়।পরে ফেলে যাওয়া বস্তাটি খুলে গণনা করে ৬০হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ১কোটি ৮০লাখ টাকা।
এছাড়া একইদিনে সাবরাং বিওপির নায়েব সুবেদার মোহাম্মাদ আলীর নেতৃত্বে একটি টহলদল সাবরাং ইউপিস্থ আর্দশগ্রাম এলাকা দিয়ে ইয়াবার একটি চালান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে।গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টহলদল রাস্তার এক পার্শ্বে অবস্থান নেয়।পরে একজন লোককে একটি ব্যাগ হাতে নিয়ে আসতে দেখে টহলদল তাদের চ্যালেঞ্জ করে।পাচারকারীদের পিছনে ধাওয়া করলে।তার হাতে থাকা ব্যাগটি ফেলে দ্রুত দৌড়ে পাশ্ববর্তী গ্রামের দিকে পালিয়ে যায়।পরে ব্যাগটি খুলে গণনা করে ৮হাজার ৪শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।এসময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।
২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন অতিরিক্ত পরিচালক কাজী মনজুরুল ইসলাম সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ইয়াবাসহ যে কোন ধরনের মাদক পাচার রোধে বিজিবি সীমান্তে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আটককৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে, যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, বেসামরিক প্রশাসন, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

Top