কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে আটক-১৪

Untitled-1-copy-1.jpg

দিদারুল আলম (জিসান) কক্সবাজার।

কক্সবাজারের বিভিন্ন স্থানে পৃথক অভিযান চালিয়ে ১৪ জন আসামীকে আটক করেছে পুলিশ। গত ১৭ মে সকাল টা থেকে ১৮ মে রাত টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, আমির হোছন, পিতামক্তুল হোছন, ২। মক্তুল হোছন, পিতামৃত সোলাইমান, সাংপশ্চিম ভাদিতলা মাদ্রাসার উত্তর পাশের্^ ঈদগাঁও, থানা জেলাকক্সবাজার, ৩। মোঃ রাসেল, পিতাজেবুল হোসেন, ৪। মোঃ সাইফুল ইসলাম, পিতাশামসুল ইসলাম, উভয়সাংজোয়ারিয়া নালা ইউপি, থানা জেলাকক্সবাজার, ৫। সৈয়দ বাদশা, পিতাআব্দুল মোনাফ, সাংপেশকার পাড়া, থানা জেলাকক্সবাজার, ৬। আনসারুল করিম, পিতামোঃ সিদ্দিক, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ৭। মোহাম্মদ ইলিয়াছ, পিতামোঃ আব্দুল হাকিম,দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ৮। শাকের উল্লাহ প্রঃ সাগর, পিতাদেলোয়ার হোসেন, সাংদক্ষিন সওদাগর পাড়া, ভারুয়াখালী ইউপি, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ৯। তবারক উল্লাহ, পিতাআলী হোসেন, সাংসাবেক পাড়া ভারুয়াখালী, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ১০। মোঃ আরিফুল ইসলাম প্রঃ ইরফান, পিতামোঃ আনোয়ার, সাংসৈকত পাড়া, কলাতলী, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ১১। মোঃ ফয়সাল, পিতামোঃ কামাল, সাংবারবাকিয়া দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানাপেকুয়া, জেলাকক্সবাজার, ১২। আখলাক, পিতাকালা মিয়া, সাংসিকদার পাড়া, চৌফলদন্ডী ইউপি, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ১৩। মোঃ শাকিল, পিতামোহাম্মদ আলম, সাংহায়দার পাড়া, চৌফলদন্ডী ইউপি, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার, ১৪। মোঃ রাশেদুল হক, পিতামৃত হাজী নুরুল হক, মধ্যম ইছাখালী, পোকখালী, দক্ষিন কলাতলী আর্দশ গ্রাম, কক্সবাজার পৌরসভা, থানা জেলাকক্সবাজার।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ফরিদ উদ্দীন খন্দকার জানান, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী ছিনতাইকারী সন্ত্রাসীকে ধরার জন্য সার্বক্ষনিক সর্তক অবস্থানে রয়েছি আমরা । এলাকার জনসাধারন যানমালের দায়িত্ব পুলিশের  হাতে এবং তা পুলিশ টিকমত পালন করে যাবে। ও পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার নিশ্চিত করা হবে এবং চুরি, ছিনতাই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান অব্যাহত থাকবে। কক্সবাজার জেলার দাগী ও মাদক ব্যবসায়ী চুরা কারবারী এবং সন্ত্রসীদের সে যত শক্তিশালী ক্ষমতা হউক না কেন তাদের চেনে আমার আমার পুলিশেরা কাজ করে যাচ্ছে। যারা যেখানে থাকোখ না কেন আমরা তাদের কে গ্রেফার করব অপরাধীরি  দের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে এবং কক্সবাজার কে শহর কে অপরাধ মুক্ত কের ছাড়ব ইনসালা। আমরা জানতে পারি কক্সবাজার জেলার মধ্যে টেকনাফ, উখিয়া, এবং রামু প্রতিটি উপজেলা মাদক চুরাকাবারী এত বেশি ভেড়েছে যে তাদের তাকে হাতে নাতে ধৃত করা অনেক কঠিন হয়ে পড়েছে। কারণ ইয়বার বড় বড় চালান গুলো পাচার করার আগে এবং পেছনে তাদের লোকজনে মহড়া থাকে ঐ জন্য প্রসাশন কোন অব্যবস্থায়  থাকে তখন প্রচারকারীদের কে সংক্ষেত বার্তা পৌছিয়ে দেন। ইতি মধ্যে কক্সবাজার জেলা সহ প্রতিটি উপজেলা েএবং ইউনিয়ন ভিত্তিক তালিকা তৈরি করা হচ্ছে আমরা তা সম্পন্ন করে অপরাধীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করব এবং ইয়বা মুক্ত কক্সবাজার শহর গড়ে তুলব ইনশাল্লা।

 

Top