নীলফামারীতে মানবিক বিভাগে জিপিএ-৫ বিপর্যয় ডিমলায় এসএসসিতে সেরা সঃ বালিকা বিদ্যালয়

ssc-10.05.18.jpg

নুর আলম,ডিমলা(নীলফামারী),প্রতিনিধি:

নীলফামারী ডিমলা উপজেলায় এবারের এসএসসি পরীক্ষায় উপজেলায় ২৮ জন শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ অধিকার করে সেরা তালিকায় রয়েছে ডিমলা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।
উপজেলায় মোট ৪ হাজার ৫শ ৫ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেন। এরমধ্যে এসএসসিতে ৩হাজার ৫শ ৪৬জনের মধ্যে পাশ করেছে ২হাজার ৫শ ৯৩জন জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬১ জন, দাখিল ৭শ২০ জনের মধ্যে পাশ করেছে ৫শ ৭জন জিপিএ ৫ পেয়েছে ১জন, এসএসসি ভোকেশনাল ১শ ৮৭ জনের মধ্যে পাশ করেছে ১শ ২১জন জিপিএ ৫পেয়েছে ০ জন,দাখিল ভোকেশনাল ৫২জনের মধ্যে পাশ করেছে ৪৪জন জিপিএ ৫ পেয়েছে ১জন। ডিমলা সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক(ভারপ্রাপ্ত) মাহপুজুল হক বলেন, এ ফলাফলে আমরা সন্তুষ্ট তবে আগামীতে আরও ভালো ফলাফল করার ব্যাপারে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যহত থাকবে।
ডিমলা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষায় মোট অংশ গ্রহনের ৫৯ জনই বিজ্ঞান বিভাগে পাশ করেছে শতভাগ জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৮ জন এবং উপজেলা সেরা স্থান অধিকার করেছে ডিমলা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি।

অপর দিকে ডিমলা রানী বৃন্দা রানী সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালযে পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেছে ৭৫ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭ জন।

এবারের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে নীলফামারীতে বিজ্ঞান বিভাগের ফলাফল সন্তোষজনক হলেও মানবিক বিভাগে বিপর্যয় ঘটেছে। জেলা শহরের সুনামধন্য তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মানবিক বিভাগে জিপিএ ৫ পায়নি কোন শিক্ষার্থী। রবিবার এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।
দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধিনে নীলফামারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ২শ ২৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ২শ ২৩ জন পাশ করেছে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১০৮ জন। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ২০৪ জন অংশ নিয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১০৮ জন, বানিজ্য বিভাগে ৩ জন এবং মানবিক বিভাগে ১৭জন অংশ নেয় এদের মধ্যে মানবিকে একজন অকৃতকার্য হয়। তবে পাশের হারের সুনাম ধরে রাখলেও মানবিক এবং বানিজ্য বিভাগে কেউ জিপিএ-৫ পায়নি।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবিএম রফিকুল ইসলাম বলেন, গত বছরের তুলনায় এ বছর আমাদের জিপিএ-৫ বেড়েছে। আমরা আগামীতে আরো ভালো ফলাফল করার ব্যাপারে সচেষ্ট থাকবো। গত বছর এই বিদ্যালয় থেকে ২শ ২৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সকলে পাশ করে এবং ওই বছর জিপিএ ৫ পায় ১শ ৫ জন শিক্ষার্থী।
অপর দিকে নীলফামারী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর ২শ ১৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সকলে পাশ করেছে। বিজ্ঞান বিভাগে ১শ ৫৯ জনের মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭৫ জন, মানবিক বিভাগে ৫৭ জন অংশ নিলেও কেউ জিপি ৫ পায়নি।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সাহের বানু বলেন, এ ফলাফলে আমরা সন্তুষ্ট তবে আগামীতে আরও ভালো ফলাফল করার ব্যাপারে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যহত থাকবে। গত বছর এ বিদ্যালয় থেকে ২শ ২১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সবাই পাশ করে সে বছর জিপিএ ৫ পায় ৫৪ জন এবার প্রায় দেড়গুণ জিপিএ ৫ বেড়েছে।
এছাড়া জেলা শহরে অবস্থিত কালেক্টরেট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ১শ ১৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাশ করেছে ১শ ১৭ জন এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ৮২ জনের মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৭জন। মানবিক বিভাগে ৩৭জন অংশ নিয়ে পাশ করেছে ৩৫জন এদের কেউ জিপিএ ৫ পায়নি।

Top