ছাত্রলীগের বাঁধার মুখে ইবিতে শিক্ষক নিয়োগ স্থগিত

received_1891072964518411.jpeg

ইবি প্রতিনিধি:
আজ ৭মে সোমবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ছাত্রলীগের সাবেক নেতারা চাকরির দাবিতে প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। তাদের চলমান অন্দোলনের মুখে বেশ কয়েকটি নিয়োগ বোর্ড স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে এ সিদ্ধান্ত নেয় ক্যাম্পাস প্রশাসন।

প্রশাসনিক সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার চাকরির দাবিতে ইবির প্রধান ফটক আটকে বাস অবরোধ করে চাকরি প্রত্যাশী সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা।
রেজিস্ট্রারের অফিস সূত্রে জানা যায়, সোমবার ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের প্রভাষক পদের, আগামী ১১ মে আইসিটি সেলের কম্পিউটার প্রোগ্রামার/ডাটাবেজ প্রোগ্রামার, সহকারী কম্পিউটার প্রোগ্রামার/ সহকারী ডাটাবেজ প্রোগ্রামার ও সহকারী নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ার/সহকারী হার্ডওয়ার ইঞ্জিনিয়ার পদের এবং আগামী ১২, ১৩ ও ১৪ মে যথাক্রমে ফার্মেসি বিভাগ, বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অ্যান্ড জিওগ্রাফি বিভাগের প্রভাষক ও সহকারী অধ্যাপক পদের নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ড অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

এদিকে সোমবারের বোর্ড অনুষ্ঠিত হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে আবারও চাকরির দাবিতে প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেয় চাকরি প্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতারা। পরিস্থিতি স্বাভাবিক মনে না হওয়ায় নিয়োগ বোর্ডগুলো অনিবার্য কারণবশত: নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করার ঘোষণা দিয়ে বিজ্ঞপ্তি দেয় কর্তৃপক্ষ। নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ডের পরিবর্তিত তারিখ ও সময় পরে জানানো হবে বলে উল্লেখ করা হয় ওই বিজ্ঞপ্তিতে।

চাকরি প্রার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে ইতিপূর্বেও বেশ কয়েকবার নিয়োগবোর্ড স্থগিত হয়েছে।

ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, ‘ক্যাম্পাসের কল্যাণার্থে প্রশাসন নিয়োগ বোর্ড স্থগিত করেছে। দ্রুতই বোর্ডগুলো অনুষ্ঠিত হবে। চাকরির দাবিতে ছাত্রলীগের আন্দোলন এটি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি বড় ধরনের সমস্যা। আমরা এই সমস্যা থেকে বের হয়ে আসার চেষ্টা করছি।’

Top