“মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পে ৭০ শতাংশ চাকরি স্থানীয়দের দিতে হবে”–আমরা মাতারবাড়ীর সন্তান’র মানববন্ধনে বক্তারা

IMG_20180504_164722.jpg

শাখাওয়াত হোছাইন(শাহিন),চট্টগ্রাম থেকে–
সরকারের উন্নয়ন কর্মযজ্ঞকে স্বাগত জানিয়ে কক্সবাজারের মহেশখালীর মাতারবাড়ীর শিল্পগুলোতে ৭০ ভাগ চাকরি স্থানীয়দের দেওয়ার দাবি জানিয়েছে ‘আমরা মাতারবাড়ীর সন্তান’নামের সংগঠন।
স্থানীয় ছাত্র-যুবকদের সমন্বয়ে গঠিত এ সংগঠনটি দীর্ঘদিন ধরে মাতারবাড়ীতে চলমান সরকারের উন্নয়ন প্রকল্পে স্থানীয়দের ৭০% চাকুরী সহ বিভিন্ন যৌক্তিক দাবীতে আন্দোলন করে আসতেছে।

শুক্রবার (৪ মে) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে চলমান প্রকল্প সমুহে স্থানীয়দের চাকুরী,ক্ষতিগ্রস্থদের পূনর্বাসন, সহজ ও দ্রুত সময়ে ক্ষতিপুরণ প্রাপ্তি সহ বিভিন্ন দাবীতে মানববন্ধন করেন।

সংগঠনের আহ্বায়ক ও চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এনামুল হক সাগর নিউজ ভিশনকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবহেলিত মহেশখালী-মাতারবাড়ীকে ঘিরে উন্নয়নের মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছেন এর জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। আমাদের দাবি হচ্ছে স্থানীয় লোকজনকে ওই এলাকার শিল্পকারখানায় ৭০% চাকরি দিতে হবে। এক্ষেত্রে সরকার আন্তরিক হলে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে স্থানীয়দের যোগ্য ও দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারে।
এ ছাড়া লবণ ও মৎস্যচাষী এবং শ্রমিকদের শতভাগ পুনর্বাসন,রেশনের ব্যবস্থা,ভূমির প্রকৃত মালিকদের ক্ষতিপূরণ,৫০০ শয্যার একটি বিশ্বমানের হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা, একটি টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা, একটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউ প্রতিষ্ঠার দাবিও জানান তিনি।

মানববন্ধনে বিভিন্ন দাবিসম্বলিত পোস্টার প্রদর্শন করেন চট্টগ্রামের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবস্থানরত মাতারবাড়ীর কয়েকশ’শিক্ষার্থী। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন কবির আহমদ, মো. শাজাহান, বেদার উদ্দীন, নুরশাদুল হক, শওকত আলী জুয়েল, মাওলানা আহমদ উল্লাহ, মোস্তাফা কামাল, আসহাব উদ্দিন, দেলোয়ার হোছাইন, মোশারফ হোছাইন, আবু বকর ছিদ্দিক, মো. সেলিম,এডভোকেট মীর মো.বয়ান,নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন সংগঠনের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য সাজ্জাদ হোসেন শামীম।

Top