কাশিয়ানী ফুকরা মদন মোহন একাডেমিতে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

31388894_2116682298563018_7792588542156210176_n.jpg

প্রসীদ কুমার দাস,গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা :

”ক্রীড়া ই বল ক্রিয়া ই শক্তি” তারই ধারাবাহিকতায় ফুকরা মদন মোহন একাডেমি এর বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোজ মঙ্গলবার সকাল ৮ টার সময় জাতীয় সঙ্গীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা ও ক্রীড়া পতাকা উত্তোলন এবং অগ্নি মর্শাল জ্বেলে শুরু করা হয়েছিল গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা মদন মোহন একাডেমিতে তিন দিন ব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান -২০১৮।

অনুষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনায় ছিল ফুকরা মদন মোহন একাডেমি এর সকল শিক্ষক- শিক্ষিকাবৃন্দ ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি।

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি সুন্দর ভাবে পরিচালনায় সহযোগিতা করেছে ফুকরা মদন মোহন একাডেমির সকল ছাত্রছাত্রী ও স্কুলের রোভার স্কাউটের সদস্যগন।

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ও সভাপতিত্ব করেন ফুকরা মদন মোহন একাডেমির কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম।

সার্বিক তও্বাবধানে ছিলেন ফুকরা মদন মোহন একাডেমির প্রধান শিক্ষক মোঃ জইন উদ্দিন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নাঈম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবক, বীরমুক্তিযোদ্ধা ও কাশিয়ানী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জনাব মোক্তার হোসেন ও ফুকরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইমদাদুল হক ইমদাদ।

অনুষ্ঠানটির পৃষ্ঠপোষকতায় ছিলেন অভিভাবক সদস্য হাসিবুর রহমান (শহীদ), অভিভাবক সদস্য স.ম সাফায়েত হোসেন, অভিভাবক সদস্য টুটুল সরদার, অভিভাবক সদস্য রবিউল মোল্যা, সংরক্ষিতা মহিলা অভিভাবক সদস্য ফেরদৌসী বেগম, দাতা সদস্য জনাব লাবনী আক্তার।

নানা আয়োজনে ও বর্ণিল সাজে সাজানো হয়ে ছিলো বিদ্যালয়ের প্রত্যেকটি প্রান্তর। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টার সময় বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মধ্য পুরস্কার বিতরনী করা হয় এবং বিকাল ৪ টার সময় এক মনঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শেষে সন্ধ্যা ৭ টার সময় বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন ফুকরা মদন মোহন একাডেমির প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ জইন উদ্দিন।

Top