দোয়ারায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধূর উপর নির্যাতন,থানায় মামলা

images1.jpg

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :
দোয়ারাবাজারে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না পেয়ে মাদকাসক্ত স্বামী তানিয়া খাতুন (২১) নামে এক গৃহবধূর নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের কলোনি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ একই এলাকার মৃত মুসলিম খানের মেয়ে।
মামলার এজাহারে যানাযায়, ২ বছর আগে একই এলাকার মৃত আসকির মিয়ার ছেলে চান মিয়ার সঙ্গে তার মেয়ে তানিয়া খাতুনের বিয়ে হয়। । বিয়ের পর তাদের সংসারে তামিম নামে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী চান মিয়া প্রায় সময়ই যৌতুকের জন্য স্ত্রী তানিয়া খাতুনের উপর নির্যাতন চালাতো। বেশকিছুদিন ধরে স্বামী চান মিয়া গৃহবধূ তানিয়া খাতুনকে তার বাবার বাড়ি থেকে যৌতুক এনে দিতে চাপ দিয়ে আসছিল। শনিবার ( ২১ এপ্রিল২০১৮) সকালে স্বামী চান মিয়া গৃহবধূ তানিয়া খাতুনকে তার বাবার বাড়ি থেকে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে,না দিলে তালাক দিবে বলে হুমকি দেয়। গৃহবধূ তানিয়া খাতুন তার পিতা ও কোন ভাই না থাকায় তার বাবার বাড়ি থেকে কোন ধরনের যৌতুকের টাকা এনে দিতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় স্বামী চান মিয়া গৃহবধূ তানিয়া খাতুনকে কারেন্টের তার দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ৭ মাসের শিশু সন্তানসহ বাড়ি থেকে বের করে দেয়। তাদের দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না দিলে বাড়িতে উঠতে দেওয়া হবে না তাকে তালাক দিবে বলে সাফ জানিয়ে দেয় স্বামী চান মিয়া ।
এ ব্যাপারে দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুশীল রঞ্জন দাস জানান, এ ধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে

Top