কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ইন্টার্নি চিকিৎসকদের মানব বন্ধন ও কর্ম বিরতি,ভোগান্তিতে রোগীরা

30709273_1790361677925351_5815162389074542592_n.jpg

আব্দুল গফুর,কক্সবাজার শহর :
কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ইন্টার্নী চিকিৎসকদের কর্ম বিরতি ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে৤ ।
ইন্টার্নি চিকিৎসকদের নিরাপত্তা ও ডা: শাফায়াতের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবীতে মঙ্গবার সকাল সাড়ে দশ টা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত কর্ম বিরতি কর্মসুচী পালন করেছে ইন্টার্নী চিকিৎসকরা । গতকাল ১৮ এপ্রিল দুপুর সাড়ে বারো টায় সদর হাসপাতাল ইমার্জেন্সি গেইটের সামনে পালন করা হয় মানববন্দন।
দুপুর সাড়ে বারটায় শুরু হওয়া এই মানববন্ধন চলাকালীন আশেপাশের রাস্তার যান চলাচল কিছু সময়ের জন্য বন্ধ হয়ে যায় ৤ এতে সাধারণ জনগনের চলাচলে ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়ে এবং শত শত রোগী ভোগান্তির স্বীকার হয় বলে অভিযোগ করেন ৤

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়,গত ১৭ এপ্রিল মঙ্গলবার শহরের কলাতলী লাইট হাউস এলাকার হাসান মোহাম্মদ নামে এক রোগীর স্বজনদের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ইর্ন্টার্ণী ডাক্তার শাফায়াতকে মারধর করার অভিযোগে ডাক্তার এবং রোগীর আত্নীয় স্বজনের মধ্যে সৃষ্ট অপ্রীতিকর ঘটনাকে কেন্দ্রে করে ইন্টার্নি চিকিৎসকরা গেইটসহ সব ফটকে তালাবদ্ধ করে কর্ম বিরতি পালন করেন। হাসপাতালের প্রধান গেইটসহ সব ফঁটকে তালাবদ্ধ হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েন রোগী ও স্বজনরা।

রোগীদের র্দূভোগের কথা বিবেচনা করে কর্মবিরতি বাদ দিয়ে কর্মস্থলে ফিরে যাওয়ার আহবান করে কক্সবাজার সদর মড়েল থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকার দেশের প্রচিলিত অাইনে অাসল অপরাধীদের চিহ্নিত করে দ্রুত গ্রেপ্তারসহ সর্ব অাইনি সহযোগীতার অাশ্বাস দেন ।
তিনি বলেন, ইতিমধ্যে অামরা একজনকে অাটক করেছি, বাকিদেরকেও দ্রূত অাইনের অাওয়াতায় অানা হবে।

১৭ তারিখের ঘটনায় আন্দোলন অব্যাহত রাখার ফলে সাধারণ রোগীদের ভোগান্তি হলেও ডাক্তারদের দাবী; অপরাধীদের শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাবেন ৤ তাদের বক্তব্য, এভাবে আর কত মার খাবে জাতির মেধাবী সন্তানরা ? যারা মানবতার সেবায় নিয়োজিত তাদের গায়ে কেন হাত তুলবে? এটা আর হতে দেওয়া যাবেনা ৤

তবে অনেকেই এসব অপ্রীতিকর পরিস্থিতির জন্য হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: পুচনুর গাফলতি ও প্রশাসন চালনায় দূর্বলতাকে দায়ী করছেন ৤

Top