ডিমলায় দু’দফায় ১০টি গরু উদ্ধার আটক ২জন

download-14.jpg

নুর আলম,ডিমলা (নীলফামারী) ঃ
নীলফামারীর ডিমলায় শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৬টি গরু উদ্ধার করেছে।
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের বালাপাড়া ও ঠাকুরগঞ্জ সীমান্ত এলাকা দিয়ে একটি চোরাকারবারী দল দীর্ঘদিন থেকে চোরাই পথে ভারতীয় গরু এনে সরকারী শুল্ক ফাঁকি দিয়ে বাজারে বিক্রি করে আসছিল।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিমলা থানা পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার গভীর রাতে পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের মধ্য ছাতনাই গ্রামের মোজাম্মেল হকের পুত্র সাজুর বাড়িতে ৬টি ভারতীয় গরু আটক করে। পুলিশের অভিযানের সময় সরকারী কাজে বাঁধার অভিযোগে সাজু ইসলামের স্ত্রী রশিদা বেগম (৩৫)কে পুলিশ আটক করেছে।
এ ঘটনায় এসআই ইমাদ উদ্দিন মোহাম্মদ ফারুক ফিরোজ বাদী হয়ে পশ্চিম ছাতনাই গ্রামের মোজাম্মেল হকের পুত্র সাজু(৪০) সাজু ইসলামের স্ত্রী রশিদা বেগম(৩৫) এমদাদুল হকের পুত্র আরমান আলী(২০) তোফাজ্জল হোসেনের পুত্র মেহেদি(২৭) আব্দুল জব্বারের পুত্র আহসান(৩৫) বাচ্চা মিয়ার পুত্র আইজুল ইসলাম(৩৫) মকা মামুদের পুত্র আনোয়ার হোসেন(৪০) কে আসামী করে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করেন। ডিমলা থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মামলার আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।
অপরদিকে গত শনিবার খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের ডোঙ্গর বাজার নামক স্থানে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪টি গরুসহ মোতাহার হোসেন (৩২) আটক করে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৪জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছিল। আটককৃত ১০টি গরুর আনুমানিক মুল্য ৪লক্ষ ৮০ হাজার টাকা। বুধবার দুপুরে গরুগুলো নিলামের জন্য কাস্টমস অফিসে কাগজপত্র প্রেরন করা হয়েছে।

Top