নানা আয়োজনে সিলেটে বাংলা বর্ষবরন পালন

images-8.jpg

তাইবুর রহমান,সিলেট প্রতিনিধি :
সিলেটে নানা আয়োজনে পালিত হচ্ছে বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। সকাল থেকে ঢাক ঢোল বাজিয়ে আনন্দ করছে কিশোর কিশোরীরা। সব বয়স ও পেশার মানুষ এই আনন্দ উপভোগ করছে।পহেলা বৈশাখের উৎসব ঘিরে নতুন সাজে সাজানো হয়েছে সিলেটের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পালন করছে -মঙ্গল শোভাযাত্রা, শতকণ্ঠে বর্ষ বরণ, আবৃত্তি ও বৈশাখী মেলা। ।

বৈশাখে মহানগরী জুড়ে মূল উৎসব থাকলেও শাবিপ্রবি, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, লিডিং ইউনিভাসিটি, মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি, এমসি কলেজ ক্যাম্পাসসহ শহরতলীর অর্ধশতাধিক স্থানে বর্ষবরণ উৎসবসহ মেলার আয়োজন রয়েছে।

শ্রুতি: প্রতিবছরের মত এবারও দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে সাংস্কৃতির সংগঠন শ্রুতি। সকাল ৭ টায় নগরীর সুবিদবাজারস্থ ব্লু-বার্ড স্কুল এন্ড কলেজে শত কণ্ঠে বর্ষবরণের মাধ্যমে তাদের অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে মাঙ্গলিক উদ্বোধন, গান, আবৃত্তি, নৃত্য, পিঠা উৎসবসহ বিভিন্ন আয়োজন থাকবে। এছাড়া উদীচী, আনন্দ লোকসহ ২৮টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকেও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে।
সমাজসেবা কার্যালয় ঃ সিলেট জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উদ্যোগে বাগবাড়িস্থ সমাজকল্যাণ কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে বর্ষবরণ উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানসূচির মধ্যে রয়েছে-সকাল ৭টায় বর্ণাঢ্য র‌্যালি, সকাল সাড়ে ৭টায় শিশু পরিবারের সাংস্কৃতিক দল ও সিলেটের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন-সংগীত শিল্পীবৃন্দের অংশ গ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

জেলা শিল্পকলা ঃ নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে ববেলা দেড়টা থেকে বিকেল দেড়টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত পূর্ব শাহী ঈদগাহস্থ শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গনে বর্ষবরণ উৎসব ১৪২৫ অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও ঢাকের বাদ্যের মধ্য দিয়ে উৎসবের মাঙ্গলিক উদ্বোধন ঘটবে। তারপর পর্যায়ক্রমে রয়েছে বৈশাখের গান, লোকসংগীত, কাঠিনৃত্য, ঝুমুর নৃত্য, লোকনৃত্য, সম্মেলক সংগীত, বৃন্দ আবৃত্তি, ধামাইল, একক ও দলীয় সংগীত এবং বাউলগান।

ওসমানী জাদুঘর: বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দকে বরণ করতে সিলেট নগরীর নাইওরপুলস্থ ওসমানী জাদুঘর কর্তৃপক্ষ মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর জেনারেল এম.এ.জি ওসমানী’র জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে এ বছর প্রথমবারের মতো বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে ওসমানী জাদুঘরের পক্ষ থেকে শোভাযাত্রা, শিশু-কিশোর সমাবেশ, লোকজ মেলা, আলোচনা সভা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং ৩ দিনব্যাপি বৈশাখী মেলা’র আয়োজন।

বৈশাখী মেলা আজ শনিবার থেকে আগামী সোমবার পর্যন্ত চলবে। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

Top