বীর মুক্তিযোদ্ধা রন্টুর স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

PicsArt_04-08-12.27.08-01.jpeg

তোফায়েল আহম্মেদ :

বগুড়ার কৃতি সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ঢাকাস্থ বৃহত্তর বগুড়া সমিতির সভাপতি  লায়ন মোঃ মাসুদুর রহমান রন্টুর স্মরণে ও তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায়, শনিবার বাংলাদেশ ইনিস্টিটিউট অফ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ এ শোক সভা ও দোয়া মাহফিল এর আয়োজন করা হয়।বিকেল ৫ টায় সুরা তেলওয়াত এর মাধ্যমে দোয়া মাহফিল শুরু হয়।শুরুতেই মুক্তিযোদ্ধা মাসুদুর রহমান রন্টুর বর্নাঢ্য জীবন নিয়ে আলোকচিত্র দেখানো হয়।

দোয়া মাহফিল এ উপস্থিত ছিলেন  ঢাকাস্থ বৃহত্তর বগুড়া সমিতির আহ্বায়ক জবান শামসুল হুদা(এটিএন বাংলার চীফ এডভাইজার), সমিতির সহ সভাপতি ম আব্দুর রাজ্জাক(সহ- সভাপতি বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবকলীগ ), মাসুদুর রহমান রন্টুর বড় ভাই আমেরিকা প্রবাসী মফজুল হোসেন, মাসুদুর রহমান রন্টুর স্ত্রী নাদিরা ডেইজী, রাজউক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আব্দুর রহমান,  ‎সহকারি পুলিশ কমিশনার বেলালুর রহমান,
ঢাকাস্থ বৃহত্তর বগুড়া সমিতির ক্রীড়া সম্পাদক জিন্নাতুল হাসান, ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মেহেদী হাসান রবিন, বগুড়া জেলা ছাত্র কল্যান পরিষদ ঢাকা কলেজ এর নেতৃত্তবৃন্দ সহ আরও অনেকে।

উল্লেখ্য মাসুদুর রহমান রন্টু ১৯৫৪ সালে বগুড়া জেলার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন।বগুড়া জিলা স্কুল থেকে মাধ্যমিক, সরকারী আজিজুল হক কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতোকত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।পেশায় তিনি ছিলেন একজন কর আইনজীবী।
১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ নিজ কর্মস্থলে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। বগুড়ার অত্যন্ত পরিচিত মুখ  ছিলেন মাসুদুর রহমান রন্টু।বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন সহ নানাবিধ সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের সাথে তিনি যুক্ত ছিলেন।বগুড়া সমিতিকে নিয়ে গেছেন অন্য এক উচ্চতায়।তার স্বপ্ন ছিলো ঢাকায় বগুড়া ভবন নির্মানের।তিনি স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসতেন।সমিতির যে কোন বিপদে বা কাজে উনাকে সবার আগে পাওয়া যেত।

Top