অানোয়ারায় বর আসার আগেই বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন ম্যাজিস্ট্রেট

29939789_1826054431028926_366463003_n.jpg

ডি এইচ মনসুর, স্টাফ রিপোটার:

আনোয়ারা উপজেলার বৈরাগ ইউনিয়নের দক্ষিণ বন্দর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রীর বাড়িতে বর আসার আগেই পৌঁছে গেলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। তাই থেমে গেল বিয়ের আয়োজন। বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল আনোয়ারা উপজেলা বৈরাগ ইউনিয়নের এক কিশোরী। আনোয়ারার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবদুল মোবিন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বন্দর গ্রামে গিয়ে বাল্যবিবাহটি বন্ধ করেন।

স্থানীয় ও প্রশাসন সূত্র জানায়, সন্ধ্যায় ১৪ বছর বয়সী নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে মো: সেলিম (৪০) বিয়ের কথা ছিল। বর আসার আগেই সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে মেয়ের বাড়িতে পুলিশ নিয়ে উপস্থিত হন ম্যাজিস্ট্রেট। এ কারণে বিয়ে বাড়িতে আসেননি বর। ম্যাজিস্ট্রেট মেয়ের বাবার কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেন।

এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবদুল মোবিন বলেন, ‘স্থানীয়ভাবে বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে নিয়ে আমরা বিয়ে বাড়িতে যাই। বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছি। প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার আগে মেয়ের বিয়ে দেবেন না বলে মুচলেকা দিয়েছেন মেয়েটির অভিভাবক।

Top